বগুড়া সংবাদ ডট কম (দুপচাঁচিয়া প্রতিনিধি আবু রায়হান) : কোরবানির ঈদের আর এক দিন বাকিঁ, শনিবার অনুষ্টিত হবে মোসলমানদের সব চেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা যার কারনে দুপচাঁচিয়া উপজেলায় কোরবানির পশুর গোস্ত কাটার জন্য কাঠের গুল কিনতে ব্যস্ত হয়ে পরেছে ক্রেতারা।বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষেরা ত্যাগের মহিমায় মহিমান্নিত হয়ে নিজেদের পছন্দ অনুযায়ি বিভিন্ন পশু কোরবানি করার জন্য ক্রয় করেছে,আর এ সব কোরবানির পশু কাটার জন্য বিভিন্ন চাকু,বটি,দ্যাঁ,ছুরীর পাসাপাশি ক্রেতা বিভিন্ন প্রজাতীর কাঠের গুল কেনার জন্য ব্যস্ত হয়ে পরেছে। বৃহস্পতিবার দুপচাঁচিয়ার ঐতিহ্যবাহী ধাপ সুলতানগঞ্জ হাটে গিয়ে দেখা যায় কাঠের গুলের দোকানে উপচেপরা ভির। বিভিন্ন প্রজাতীর কাঠ দিয়ে তৈরী এ সব গুল যা দিয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ খুব সহজেই কোরবানির পশুর গোস্ত কাটতে পারে।এক দিকে কাঠ ব্যবসায়ীরা এ সব কাঠের গুল বিক্রি করে লাভবান হচ্ছে,অন্যদিকে বিভিন্ন শেণী পেশার মানুষ এ সব কাঠের গুল কিনে খুব সহজেই কোরবানির পশুর গোস্ত কাটতে পারছে।
কাঠ ব্যবসায়ী সাংবাদিক ফিরোজ হোসেন জানায়,দুপচাঁচিয়া উপজেলার ধাপের হাট সহ বিভিন্ন বাজারে কোরবানির গোস্ত কাটার বড় আকারের কাঠের গুল ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায় এবং ছোট আকারের গুল ২০০ থেকে ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
দুপচাঁচিয়া পৌরসভার ঠিকাদার সামছুল ইসলাম লাদেন বৃহস্পতিবার ধাপের হাটে কোরবানির গোস্ত কাটার গুল কিনতে এসে জানায় তিনি বড় আকারের কাঠের গুল ৫৫০ টাকা দিয়ে কিনেছেন।
দুপচাঁচিয়া পৌর কর্মকর্তা আলী হাসান রকি জানায় তিনি দুপচাঁচিয়া বাজার থেকে কোরবানির গোস্ত কাটার ছোট আকারের কাঠের গুল ২৮০ টাকা দিয়ে কিনেছেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন