fbpx
শেরপুর

শেরপুরে মসজিদে দেয়া দানকে ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা!

নয় ইউপি সদস্যদের সংবাদ সম্মেলন

বগুড়া সংবাদ ডটকম ( শেরপুর প্রতিনিধি)
বগুড়ার শেরপুরে মসজিদে দেয়া দানকে ভিন্ন খাতে প্রবাহের অপচেষ্টার প্রতিবাদে খানপুর ইউনিয়নের ৯ জন ইউপি সদস্য শেরপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তারা সংবাদ সম্মেলনে দাবী করেন ভাতাভোগীদের নিকট থেকে ঘুষ নেয়ার বিষয়টি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।
আজ শনিবার (০৮ আগস্ট) দুপুরে শহরের স্থানীয় বাসষ্ট্যান্ড শেরপুর প্রেসক্লাব কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন উপজেলার খানপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মো. খলিলুর রহমান। তিনি বলেন, স্থানীয় কয়েরখালী বাজারস্থ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন বহুতল মসজিদ ও হাফেজিয়া মাদ্রাসা নির্মিত হচ্ছে। এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতা ও তাদের দানের টাকায় ধর্মীয় এই প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজ দ্রæতগতিতে এগিয়ে চলেছে। অত্র ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম রাঞ্জুর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এই মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণ কাজে এলাকার প্রায় সব মানুষই স্বেচ্ছায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন। এরই ধারাবাহিকতায় বেশকিছু ভাতাভোগী সদস্য ভালো কাজে অংশ নিতে স্বেচ্ছায় সাধ্যনুযায়ী টাকা দান করেছেন। আর মসজিদ পরিচালনা কমিটির লোকজন রশিদ মূলে সেই টাকা গ্রহণ করেছেন। এক্ষেত্রে চেয়ারম্যান ও আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। অথচ এই ঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য একটি কু-চক্রীমহল নানামুখি ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছেন। আমাদের সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতেই ঘুষ নেয়ার মিথ্যা অভিযোগ এনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালনের নামে সাজানো ও কল্পিত নাটক মঞ্চস্থ করা হয়। এহেন কর্মকাÐের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আ.লীগ নেতা খলিলুর রহমান আরও বলেন, তার ইউনিয়নে ভাতাভোগীদের নিকট থেকে কোন ঘুষ নেয়ার ঘটনা ঘটেনি। তারা স্বেচ্ছায় ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজে দান করেছেন। তাই এটি নিয়ে রাজনীতি করা ঠিক নয়। এরপরও অভিযোগ ওঠায় ভাতাভোগীদের দানের টাকা ফেরৎ দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেন তারা।
উক্ত সংবাদ সম্মেলনে ইউপি সদস্য মোজাফ্ফর রহমান, রেজাউল করিম, ফরিদ উদ্দীন, আজিজুল হক, নুরুল ইসলাম নুরু, ওমর আলী, ফুলেরা খাতুন, রানু বালা প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + 6 =

Back to top button
Close