fbpx
বগুড়া জেলার সংবাদবগুড়া সদর

বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়ায় অল্পের জন্য বেঁচে গেল সনাতন ধর্মের পরিবারের ৬/৮ জন সদস্য

বগুড়া সংবাদ ডট কম : শুক্রবার সকালে বগুড়ার লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের পীরগাছা বথুয়া বাড়ী কালি মন্দিরের বট গাছ হঠাৎ করে একটি বাড়ীর উপর পড়ে যাওয়াই অল্পের জন্য বেঁচে গেল পরিবারের শিশুসহ ৭/৮ জন সদস্য।

সরেজমিনে জানা গেছে সদরের পীরগাছা বথুয়া বাড়ীর কালিমন্দিরের পাশে রয়েছে ২/৩ শত বছরের পুরানো একটি বট গাছ। তার লতা থেকে আরও একটি মোটা বট গাছের জন্ম হয়েছিল। সেটাও অতি পুরানো। শুক্রবার সকাল অনুমান ৭ টা ৩০ মিনিটে হঠাৎ সে গাছটি ভবেশ চন্দ্রের বাড়ির উপর উপড়ে পড়লে বাড়িতে থাকা ৭/৮ জন সদস্য দ্রুত বাড়ী থেকে বের হয়ে আসে। বের হতে না পাড়লে গাছের চাপায় ঘরের দেয়ালের নিচে পড়ে সকলের প্রান হানির ঘটনা ঘটত। এজন্য বলা হয় ” রাখে আল্লাহ মারে কে?’ গাছ পড়ায় বাড়িটি বসবাসের অনুপযোগী হয়ে আছে। অতি দরিদ্র ভবেশ ও তার পরিবারের সদস্যরা জানান বাড়িটি মেরামত করার অর্থ তাদের কাছে নেই। সরকারী ভাবে দ্রুত বাড়িটি মেরামতের জন্য পরিবারের সদস্য ও গ্রাম বাসী সরকারী সহযোগীতা কামনা করেছেন। পুলিশিং কমিটির সভাপতি শ্রী উজ্জল কুমার চন্দ্র, ইউপি সদস্য রুবেল সাকিদার, সমাজ সেবক নজরুল ইসলাম সমাজের বিত্তবান ও প্রশাসনের নিকট তাদের পাশে দাড়ানোর আহবান জানান। বামে আরও একটি পুরানো বট গাছ যেকোন মহুর্তে ভেংগে পড়ে অন্যান্য ঘরবাড়ী ও প্রাণহানির ক্ষতি হতে পারে। এজন্য সে গাছটিও দ্রুত অপসারণ করা দরকার বলে গ্রাম বাসীরা জানান। এব্যাপারে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান সফিক ও আজিজুর রহমানের সাথে কথা বললে তাঁরা জানান ক্ষতি গ্রস্থ পরিবারের সহযোগীতার জন্য আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + 4 =

Back to top button
Close