fbpx
বগুড়া জেলার সংবাদশিবগঞ্জ

শিবগঞ্জে প্রতিপক্ষকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা

বগুড়া সংবাদ ডট কম (শিবগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুর রহমান রানা) : বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের গাংনগর চারমাথা এলাকায় চারাগাছ বিক্রয়ের টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ আরিফকে কৌশলে ফাঁসানোর চেষ্টার খবর পাওয়া গিয়েছে।

স্থানীয় শতাধিক জনসাধারণের বরাত দিয়ে জানা যায়, গত শুক্রবার রাতে রাজশাহী বাঘা থানার মনিগ্রাম এলাকার চারাগাছ ব্যাপারী মান্নাফের কাছ থেকে শিবগঞ্জ উপজেলার গাংনগর চারমাথা এলাকার চারাগাছ ব্যবসায়ী আরিফ পূর্বের পাওনা ৫ হাজার টাকা চাইতে গেলে এবং উপজেলার রহবল এলাকার আবু তাহের’র চক্রান্তে ব্যাপারী মান্নাফ অন্য নার্সারী মালিক আশরাফুলের কাছ থেকে একগাড়ী চারা গাছের টাকা সম্পন্ন মেরে দেওয়ার ফন্দি করে। পরবর্তীতে ব্যাপারী মান্নাফ আবু তাহের’র কু-পরামর্শে নিজেই লাপাত্তা হয়ে যায়। তাদের কু-মতলব বুঝতে পেরে নার্সারী মালিকের ছেলে সাকিরুল, সৌরভ, ব্যবসায়ী আরিফসহ এলাকার মানুষ চারাগাছ গাড়ি থেকে নামিয়ে নেয়।

এদিকে ব্যাপারী মান্নাফ গুমের নাটক করে একদিন পর নিজেই গুম থেকে ফিরে এসে কৌশলে নিজেকে বাঁচানোর জন্য ও ব্যবসায়ী আরিফকে পাওনা টাকা না দেওয়ার জন্য উল্টো মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে গত সোমবার একটি অভিযোগ দায়ের করে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

অভিযোগে বলা হয়, মান্নাফের কাছ থেকে সাঈদ লক্ষাধীক টাকা ছিনতাই করে নেয় এবং জীবননাশের হুমকি দেয়।

অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ আরিফকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আরিফকে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

বিষয়টি সমাধানের জন্য পুনরায় বসার কথা রয়েছে মর্মে জানা যায়।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শি তারিফুল, হান্নান, জিল্লুর, ঈদ্রীস (গুটলু) মামুন, একরামুল, রব্বানী, রানা, রমজান, মজনু ও মনোয়ারা বলেন, আরিফকে ফাঁসানোর জন্যই এমন নাটক করেছে আবু তাহের ও ব্যাপারী মান্নাফ, আমরা নিরীহ ব্যবসায়ী আরিফ’র বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগের বিচার চাই।

ভূক্তভোগী ব্যবসায়ী আরিফ বলেন, আমাকে ফাঁসানোর জন্য ও অপর নার্সারী মালিক আশরাফুলের টাকা আত্মসাৎ করার জন্য এমন নেক্কারজনক ঘটনাটি ব্যাপারী মান্নাফ ঘটিয়েছেন।

আবু তাহের ও ব্যাপারী মান্নাফের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাদেরকে মুঠোফোনে পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাই প্রধান বলেন, বিষয়টি খুবই দূঃখজনক, আমি এর সুষ্ঠ সমাধান কামনা করি।

এব্যাপারে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মাহবুব বলেন, উক্ত ঘটনায় এক পক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, বিষয়টি সাজানো ঘটনা কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এরির্পোট লেখা পর্যন্ত বিবাদী আরিফ থানায় পাল্টা অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা যায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − 17 =

Back to top button
Close