ধুনটবগুড়া জেলার সংবাদ

পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর ধুনটে সরকারি রাস্তার বেড়া অপসারন করল প্রশাসন : স্বস্তি ফিরে পেল জনসাধারন

বগুড়া সংবাদ ডট কম (ধুনট প্রতিনিধি ইমরান হোসেন ইমন) : বগুড়ার ধুনট উপজেলার সদর ইউনিয়নের বেলকুচি গ্রামের নির্মানাধীন সরকারি রাস্তার বেড়া অবশেষে অপসারন করেছে স্থানীয় প্রশাসন। সোমবার সকাল ১০টায় ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ ওই রাস্তা থেকে বাঁশের বেড়া অপসারন করে চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। আর এতে স্বস্তি ফিরে পেয়েছে জনসাধারন। তবে এর আগে ‘ধুনটে সরকারি রাস্তার নির্মান কাজ বন্ধ : প্রতিবাদ করায় গ্রাম্য মাতব্বরকে কুপিয়ে জখম’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হলে ঘটনাটি প্রশাসনের দৃষ্টি গোচর হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বেলকুচি গ্রামের মাদ্রাসা থেকে ১০০০ মিটার অংশ পাকা করণের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) দরপত্র আহবান করে। গত ১২ মার্চ দরপত্র আহবানের মাধ্যমে বগুড়ার ইসলাম এন্টারপ্রাইজ নামে এক ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ দেওয়া হয়। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান গত ২৩ এপ্রিল থেকে নির্মান কাজ শুরু করে ৯৫০ মিটার অংশ পাকাকরণ করেছে। কিন্তু অবশিষ্ট ৫০ মিটার অংশ বাঁশের বেড়া দিয়ে নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয় বেলকুচি গ্রামের খবর সরকারের ছেলে মুকুল সরকার ও একই গ্রামের গুটু তালুকদারের ছেলে আব্দুস সালাম। তারা দুই জনই রাস্তার দু’পাশে আড়াআড়িভাবে বাঁশের বেড়া দেওয়ায় গত এক মাস যাবত ওই রাস্তায় কোন যানবাহন বা লোকজন যাতায়াত করতে পারছিল না। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছিল এলাকার শতাধিক মানুষকে। তবে এবিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাননি তারা। তাই স্থানীয়ভাবেই বিষয়টি আপোষের চেষ্টা করতে থাকেন গ্রাম্য মাতব্বর আমজাদ হোসেন। আর এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে আব্দুস সালাম। এরই জের ধরে গত শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় আব্দুস সালাম ও তার ভাই হাসেন আলী সহ ৫/৬জন ব্যক্তি অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে আমজাদ হোসেনের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এসংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন বিভিন্ন অনলাইন, স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশের পর প্রশাসনের দৃষ্টি গোচর হয়। ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, সরকারি রাস্তায় অবৈধভাবে বাঁশের বেড়া দেওয়ায় যাতায়াত বন্ধ ছিল। সংবাদ পেয়ে বেড়া অপসারন করা হয়েছে। এছাড়া রাস্তায় বেড়া দেওয়াকে কেন্দ্র করে এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 − 3 =

Back to top button
Close