বগুড়া জেলার সংবাদশেরপুর

বিচারের আশায় বিভিন্ন মহলের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে || শেরপুরে পৈত্বিক সম্পত্তি ও বাড়িঘর হারিয়ে স্ত্রী সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন

বগুড়া সংবাদ ডট কম (শেরপুর প্রতিনিধি কামাল আহমেদ) : বগুড়ার শেরপুরের সুঘাট ইউনিয়নের মধ্যভাগ গ্রামে পৈত্বিক সম্পত্তি নিয়ে আদালতে মামলা করে সুষ্ঠ বিচার পেলেও স্থানীয় প্রভাবশালী প্রতিপক্ষের হামলায় ভাংচুর, লুটপাটে নিজ বাড়িঘর থেকে বিতাড়িত হয়ে সুষ্ঠ বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছে একই গ্রামের বাবলু শেখ। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের ভয়ে তার নিজ বাড়িতে যেতে না পেরে ছোট্ট মেয়ে সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে অন্যত্র মানবেতর জীবনযাপন করছে এমন অভিযোগে ৬ আগস্ট মঙ্গলবার দুপুরে শেরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।
সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে ভূক্তভোগী বাবলু শেখ বলেন, উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের মধ্যভাগ গ্রামের মধ্যভাগ মৌজার ৮২ দাগের ৮১ শতক জমি কেন্দ্র করে পৈত্বিক সুত্রে প্রাপ্ত জমি-জমার ওয়ারিশানমুলে দখল নিয়ে আদালতে মামলায় নিজের পক্ষে রায় পায়। কিন্ত রায় মানতে নারাজ হয়ে একই গ্রামের প্রতিপক্ষ রইচ উদ্দিনের ছেলে শহিদ ও রফিকুল ইসলাম, মৃত হরমুজ শেখের ছেলে আমান উল্ল্যা, মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে শাহা আলী সহ ১৫/১৬ জনের সংঘবদ্ধরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গত ১৬ জুনে বাবলু শেখ ও তার স্ত্রী সন্তানকে হত্যা করবে মর্মে হুমকী দিয়ে তার বসত ঘরে ভাংচুর চালায়। এসময় স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঘরের পেছনের দরজা পালিয়ে যায় এবং প্রতিপক্ষরা তার বাড়ীর ২৫ শতাংশ জায়গায় লাগানো গাছ-গাছরা, ঘর ভাংচুরসহ ফ্রিজ,টিভি, গ্যাসের চুলা, সোনার গহনা ও নগদ ৭০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় প্রতিপক্ষরা তিনি জানান। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলেও প্রতিপক্ষরা প্রভাবশালী হওয়ায় অজ্ঞাত কারনে সুষ্ঠ বিচার বঞ্চিত হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করে। এদিকে আদালতে মামলা দায়ের করায় মামলা তুলে নিতে প্রাননাশের হুমকী দিচ্ছে প্রভাবশালী প্রতিপক্ষরা। এর প্রেক্ষিতে প্রানের ভয়ে নিজ বাড়ীতে যেতে না পেরে স্ত্রী আমিনা খাতুন, পাচ বছর ও আড়াই বছর বয়সী ছোট্ট শিশু সুমাইয়া ও তাবাকসুমকে নিয়ে প্রায় ২ মাস যাবত শশুড় বাড়ীতে মানবেতর জীবনযাপন করছে। এদিকে তার পৈত্বিক সম্পত্তি ও নিজবাড়ীর দখল ফিরে পেতে স্থানীয় পর্যায়ের বিভিন্ন শ্রেনীর মাতব্বরদের কাছে ধর্ণা দিচ্ছে ভূক্তভোগী বাবলু।
এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী বাবলু উপস্থিত গনমাধ্যমকর্মীদের জানান, তার পৈত্বিক সম্পত্তি বেদখল দেয়ায় আদালতে মামলা রায় পান। কিন্তু আদালতে রায়কে মানতে নারাজ হয়ে স্থানীয়ভাবে দখল না ছাড়ার বিষয়ে থানায় একাধিকবার শালিশী বৈঠক করেছি এবং বৈঠকের জমি ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত হলেও প্রভাবশালী প্রতিপক্ষরা মানছে না। তাইতো নিজ বাড়ীতে ঢুকতে না পেরে এবং স্ত্রী-সন্তান নিয়ে নিরাপত্তা হীনতা ও মানবেতর জীবনযাপন করাসহ সুষ্ঠ বিচারের আশায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × three =

Back to top button
Close