বগুড়া জেলার সংবাদবগুড়া সদর

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে দেশ আজ উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় সফল পথে চলছে -মজিবর রহমান মজনু

বগুড়া সংবাদ ডট কম : বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বাঙালি জাতির ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কিত অধ্যায়। এদিন জাতি হারিয়েছে তার প্রাণপুরুষকে আর দেশ হারিয়েছে তার স্থপতিকে এবং ইতিহাস হারিয়েছে তার রচনাকারীকে। পথ হারানো যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে বঙ্গবন্ধু যখন সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে সোনার বাংলা গড়ার সংগ্রামে নিয়োজিত, তখনই স্বাধীনতাবিরোধী-যুদ্ধাপরাধী ঘাতকচক্র জাতির পিতাকে হত্যা করে। স্বাধীনতার মহানায়ককে নিমর্মভাবে হত্যার মধ্যদিয়ে তারা বাঙালির ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, কৃষ্টি ও অগ্রযাত্রাকে স্তব্ধ করার অপপ্রয়াস চালায়। অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশের রাষ্ট্রকাঠামোকে ভেঙে ফেলাই ছিল তাদের মূল লক্ষ্য। ১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধুর উত্তরসূরি জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার কাজ শুরু করেন। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষ ত্যাগ-তিতিক্ষা, আন্দোলন-সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তথা মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার আদর্শ প্রতিষ্ঠার প্রত্যয়ে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় সফল পথে চলছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারন করে দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কাজ করছে। সেই উন্নয়ন কর্মকান্ড সফল করতে হবে। দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে একটি মহল নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে হবে। বঙ্গবন্ধুর একজন সৈনিকও বেঁচে থাকতে দেশ বিরোধী কোন ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না। তিনি নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানার জন্য আহবান জানান। তিনি শনিবার বিকেলে বগুড়া শহরের শহীদ টিটু মিলনায়তনে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে আলোচনা ও শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন। ১৫ আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সহ নিহত তাঁর পরিবারের সকল সদস্যবৃন্দ, ১৭ আগষ্ট বোমা হামলা ও ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্মরনে সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অসীম কুমার রায়ের সঞ্চালনায় এতে প্রধান আলোচক ছিলেন জেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা: মকবুল হোসেন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এড. মকবুল হোসেন মুকুল, রাগেবুল আহসান রিপু, টি জামান নিকেতা, মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, জাকির হোসেন নবাব, অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু, সুলতান মাহমুদ খান রনি, রুহুল মোমিন তারিক, রফি নেওয়াজ খান রবিন, আবু সুফিয়ান সফিক, মাফুজুল ইসলাম রাজ, আব্দুস সালাম, আলমগীর বাদশা, শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, সাজেদুর রহমান সাহীন, আমিনুল ইসলাম ডাবলু, মঞ্জুরুল হক মঞ্জু প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + seven =

Back to top button
Close