বগুড়া সংবাদ ডটকম : ২০২২ সালের মধ্যে দেশ থেকে জলাতঙ্ক নির্মূলের লক্ষ্যে বগুড়া জেলায় ব্যপক হারে কুকুরের টিকাদান (এমডিভি) কার্যক্রম কে সামনে রেখে বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সভা কক্ষে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ডা: সামির হোসেন মিশুর সভাপতিত্বে অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন জলাতঙ্ক নিমূর্লে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি কার্যক্রম। এই কার্যক্রম সফলভাবে করতে তিনি সকল মহলকে সহযোগিতা করতে আহবান জানান। তিনি বলেন, প্রান্তিক পর্যায়ে জলাতঙ্ক আতঙ্ক এখনো রয়েছে। যেহেতু জলাতঙ্ক হলে এর চিকিৎসা এখনো আবিষ্কার হয়নি তাই এ বিষয়ে সকলের আরও সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে। টিকাদান কার্যক্রম প্রাথমিকভাবে শুরু হয়েছে পরবর্তীতে এর অনেক ভাল সুফল পাওয়া যাবে বলেও তিনি আশা করেন। অনুষ্ঠানে পর্যায়ক্রমে বক্তব্য রাখেন জেলা সিভিল সার্জন ডা: শামসুল হক, বগুড়া পৌরসভার মেয়র এ্যাড. এ.কে.এম মাহবুবুর রহমান, বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আজগর তালুকদার হেনা, বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজিজুর রহমান, জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা: রফিকুল ইসলাম তালুকদার, দৈনিক করতোয়ার বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্টাচার্য শংকর প্রমুখ। এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান সাজেদা সামাদ, উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা সেলিম হোসেন শেখ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার, বগুড়া সদর উপজেলার শেখেরকোলা, ফাঁপোড়, গোকুল ও লাহিড়িপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান যথাক্রমে আবু সুফিয়ান শফিক, প্রভাষক মহররম আলী,সওকাদুল ইসলাম সরকার ও মাফতুন আহমেদ, নামুজা ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল বাসেদ, শিশু ও যুব সংগঠক সঞ্জু রায়, সদর উপজেলার সকল স্বাস্থ্য ইন্সপেক্টরগণ সহ জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য সারাদেশে প্রায় ২৬ টি জেলায় কুকুরের এই টিকাদান কার্যক্রমের আওতায় রয়েছে যার আলোকে বগুড়াতেও ইউনিয়ন ও পৌরসভা ২ পর্যায়ে ২৬২ টি দলের মাধ্যমে এই কার্যক্রম পরিচালিত হবে। সভায় কার্যক্রমের বিস্তারিত বিষয়ে বিভিন্ন ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করেন এমডিভি কনসালট্যান্ট কামরুল ইসলাম।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন