বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের ভোমরকুটি উত্তরপাড়া গ্রামে সরকারী রাস্তা কেটে কৃষি জমিতে পরিণত করার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে সোমবার এলাকাবাসীর পক্ষে ওই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে মোছা. শাহানা খাতুন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করেছেন ।
অভিযোগ সূত্রে ও সরেজমিনে জানাগেছে, উপজেলার ভোমরকুটি মৌজার জে এল নং-১৭৩, ১ নং খাস খতিয়ানভুক্ত ভোমরকুটি উত্তরপাড়া মোহাম্মদ আলীর বাড়ি থেকে পশ্চিম দিকে পন্ডিতপাড়ার মধ্যে দিয়ে নবনুর হাফেজিয়া মাদ্রাসা পর্যন্ত রাস্তাটি ১৯৩০ সালে প্রস্তুতকৃত সিএস নকশায় উল্লেখ রয়েছে। ওই রাস্তাটি গ্রামবাসি প্রায় ১০০ বছর যাবৎ ব্যবহার করে আসছে। খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সরকারিভাবে ৪-৫ বার মাটি কেটে রাস্তাটি সংস্কার করেছে।
গত ১২ অক্টোবর একই গ্রামের ওসমান গণি ১০ ফিট প্রসস্ত ও ৬০ ফিট দৈর্ঘ্যর রাস্তাটি কেটে কৃষি জমিতে পরিণত করেছে। এমনকি বাঁশের বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে।
এতে এলাকাবাসিরা অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। তারা ঝোপ-ঝাড় ও জংগলের মধ্যে দিয়ে চলাচল করছে।
অভিযুক্ত ওসমান গণির পরিবারে সদস্যরা জানান, রাস্তাটি আগে সিএস নকশায় উল্লেখ ছিলো এখন আর নেই। এছাড়াও শাহানা খাতুন তাদের ১ শতক জমি দখল করে রেখেছে।
ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল-ফারুক জানান, রাস্তাটি আগে সরকারি ছিলো এখন আর নেই। এ তাছাড়া বাদি-বিবাদিদের মধ্যে জমি নিয়ে দ্বন্দ রয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. ফুয়ারা খাতুন জানান, অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন