বগুড়া সংবাদ ডট কম (রশিদুর রহমান রানা, শিবগঞ্জ প্রতিনিধি) : বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিহার এলাকার নদীতে ভাসমান এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। স্থানীয়রা জানান, লাশের নাম পরিচয় সনাক্ত হয়েছে । সে বিহার দক্ষিন ফকির পাড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র,ফজলে রাব্বী তার নানার স্বাক্ষ্য মতে-সে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার শালকুরিয়া গ্রামের মোঃসাগর ইসলাম(২০)পিতা-মোঃ দেলোয়ার হোসেন।

সে গত সোমবার ৪ জুন দিবাগত রাতে মাদ্রাসায় ইফতারী খেয়ে এক রুমে ৪ জন ঘুমিয়ে পড়ে। পরে সেহরীর সময় হুজুর তাদেরকে ডাকতে গেলে এসে দেখে দরজার ছিটকানী খোলা পর তার সাথে থাকা অন্য ৩জন কে জিজ্ঞাসা করলে তারা জানায় যে, আমরা সবাই তো একসাথে শুয়ে ঘুমিয়ে ছিলাম পরে ফজলে রাব্বি কখন ঘর থেকে উঠে গেছে আমরা জানিনা থেকেই সে নিখোজ ।

বুধবার সকালে লোকজন নদীতে কচুরি পানার ভেতরে মরা দেহ ভাসতে দেখে থানায় খবর দেয় । এলাকাবাসি জানান মোঃ সাগর ইসলাম মাদ্রসার পার্শ্ববর্তী মসজিদে ইমামতি করতো এবং ইমামতি নিয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ স্থানীয় মুসল্লীদের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ লাশ টি মর্গে প্রেরন করেন । এ নিউজ লেখা অবদি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ক্যাপশন
শিবগঞ্জে নিখোজ হওয়া মাদ্রাসা ছাত্রের ভাসমান লাশ নদীতে উদ্ধার।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন