বগুড়া সংবাদ ডট কম(আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান)ঃ বগুড়ার আদমদীঘিতে এক পা বেঁধে মুখে কাপড় ঢুকিয়ে গৃহবধুর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক ধর্ষনের অভিযোগে লম্পট আলমগীর (২৬) সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে গৃহবধু বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত ধর্ষক গ্রেফতার হয়নি। মামলার তদন্তকারী অফিসার ওসি তদন্ত কিরন রায় মামলা দায়েরের রেকর্ডের কথা নিশ্চিত করে বলেন, আসামীদের গ্রেফতারের তৎপরতা চালানো হচ্ছে।
মামলা সুত্রে জানা যায়, আদমদীঘির শিবপুর গ্রামের আশরাফুল ইসলামের মেয়ে সাথে ধনতলা গ্রামের সাহাদত হোসেনের সহিত বিবাহ হয় এবং স্বামীর বাড়ীতে বসবাস করছিল। বিভিন্ন সময় আলমগীর বাদীনী কে বিরক্ত সহ কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল বাদীনি তা প্রত্যাক্ষান করেন। গত ২২ মার্চ পিতার বাড়ীতে ভিকটিমকে রেখে স্বামী চলিয়া যায়। পিতার বাড়ীতে বাদীনি রাতে টিভি দেখে। কিছুক্ষন পর বাড়ীর বাথরুমে যায় এ সুযোগে আন্যান্য আসামীদের সহযোগীতায় বাড়ীর পাচির টপকিয়ে ঘরে প্রবেশ করে। বাদীনি বাহির থেকে ঘরে প্রবেশ করলে ঘড়ে ওৎ পেতে থাকা লম্পট আলমগীর বাদীনিকে হুমকি দিয়ে তার পা বেধে মুখে কাপর ঢুকিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করে বাদীনি কৌশলে মুখের কাপর খুলে চিৎকার দিলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে লম্পট আলমগীর সহ তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ভিকটিম বাদী হয়ে গত ২৮ মার্চ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ওসি আদমদীঘি কে রেকর্ড করতে নির্দেশ দেয়। ওসি আদমদীঘি মামলাটি গত ১৬ এপ্রিল সোমবার মামলাটি রেকর্ড ভুক্ত করেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন