বগুড়া সংবাদ ডট কম(নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি মো: ফিরোজ কামাল ফারুক): বগুড়ার নন্দীগ্রাম মডেল পাইলট হাইস্কুলে রহস্যময় চুরির ঘটনা ঘটেছে। তালাবদ্ধ দুটি কম্পিউটার কক্ষ থেকে একটি ল্যাপটপ ও দুটি পিসি চুরি হয়ে গেলেও স্কুল কর্তৃপক্ষ, কম্পিউটার শিক্ষক/কর্মচারী জানেন না কবে, কীভাবে এই চুরির ঘটনা ঘটেছে।
কম্পিউটার শিক্ষক শামছুল বারী জানান, গত বুধবার তিনি সর্বশেষ কম্পিউটার বিষয়ক ক্লাস নিয়েছেন। এরপর চারদিন সরকারি ছুটি থাকায় স্কুলের তৃতীয় তলার ওই কক্ষে প্রবেশ করেনি। কিন্তু গত সোমবার বিকেলে কম্পিউটার ক্লাস নেওয়ার জন্যে ওই কক্ষের তালা খুলতে গেলে তিনি দেখেন পুরাতন তালা লাগানো ছিল, সেখানে নতুন তালা ঝুলছে। এসময় তিনি প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি জানান। তখন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গিরিস চন্দ্র রায় ওই কক্ষের নতুন তালাটি জোরে টানতেই খুলে যায়। ভিতরে প্রবেশ করেই দেখেন একটি ল্যাপটপ ও দুটি পিসি নেই এবং অন্যান্য কম্পিউটারের তারগুলো এলোমেলো ভাবে খুলে রাখা হয়েছে।
অত্র হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গিরিস চন্দ্র রায় বলেন, কম্পিউটার কক্ষের তালার তিনটি চাবি রয়েছে। তার মধ্যে একটি তার কাছে, কম্পিউটার শিক্ষক শামছুল বারী ও নৈশ্য প্রহরী মন্টু মিয়ার কাছে থাকে। তবে চাবি থাকলেও সেসব তালা পাওয়া যাচ্ছে না। সেখানে নতুন তালা লাগানো হয়েছে। এবিষয়ে পুলিশকে জানিয়েছেন বলে তিনি জানান। এলাকাবাসী বলছেন, শিক্ষকদের মধ্যে দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্বের কারণে এঘটনা ঘটতে পারে।
এবিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একরামুল হক বলেন, ওই বিদ্যালয়ে কোন কমিটি নেই। কমিটি বিহীন প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম চলছে। তিনি শিক্ষা অফিসার হিসেবে চুরির বিষয়টি শুনেছেন এবং প্রধান শিক্ষককে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়াও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চুরির বিষয়টি অবহিত করেছেন তিনি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন