বগুড়া সংবাদ ডট কম(সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন): বগুড়া তথা উত্তরবঙ্গের মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয় ও দৃষ্টিনন্দন সারিয়াকান্দির যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত প্রেম যমুনার ঘাট। উপজেলার সদর ইউনিয়নের দীঘলকান্দি এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক নির্মীত এই গ্রোয়েন বাঁধটি পর্যায়ক্রমে পর্যটকদের কাছে বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ছুটির দিন ও বিশেষ দিনগুলোতে শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়ষের মানুষের যাতায়াত করতে দেখা যায় প্রেম যমুনা, কালিতলা গ্রোয়েন বাঁধে। কালিতলা গ্রোয়েনটি পরিষ্কার হলেও প্রধান পর্যটনকেন্দ্র প্রেম যমুনার ঘাট স্থানীয় লোকজনের কারনে অনেকটাই নাজুক হয়ে পরেছে। সম্প্রতি এলাকার লোকজন গরুর গোবর শুকানোর জন্য নির্ভরযোগ্য স্থান হিসেবে বেছে নিয়েছে এই পর্যটন কেন্দ্রটি। এছাড়াও অবৈধভাবে সরকারী যায়গা দখল করে এর ওপর রাখা হয়েছে উৎবৃত্ত পাথর। এতে করে পরিবেশ দুষনের পাশাপাশি পাথরের কারনে ইট সোলিং করা রাস্তার ক্ষতি হচ্ছে। অস্বাস্থকর ও পরিবেশ দুষনের কারনে কমতে শুরু করেছে দূর দূরান্ত থেকে আসা ভ্রমন বিলাশী মানুষের সংখ্যা। পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক প্রেম যমুনার ঘাটের যত্ন নেয়ার কথা থাকলেও অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে এটি। রাস্তার উপরে পাথর থাকায় ঝুকি নিয়ে চলতে হচ্ছে পথচারীদের। সুদুর নাটোর থেকে আসা একজন পর্যটকের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এখানে এসে আমার অনেক ভালোলেগেছে। যায়গাটা অনেক সুন্দর এবং মনোরম, এখান থেকে এই ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করলে আরও একটু ভালো লাগতো। প্রেম যমুনার ঘাটের ব্যবসায়ী মানিক মিয়া বলেন, এখান থেকে গোবর সরিয়ে স্বাস্থসম্মত পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসন কে এগিয়ে আসতে হবে। এই পর্যটনকেন্দ্রটি যদি পরিক্ষার পরিচ্ছন্ন ও দখলমুক্ত করে পূর্বের রুপে ফিরিয়ে আনতে পারলে আরও জনসমাগম এবং স্থানীয় মানুষের ইনকামের উৎসে পরিনত হতে পারে বলে মনে করছেন সুশীল সমাজ। দখলমুক্তকরন ও পরিবেশ দুশন থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারন মানুষ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন