fbpx
শেরপুর

শেরপুরে আড়াই বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

শেরপুর (বগুড়া)
বগুড়ার শেরপুরে এবার আড়াই বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় আব্দুল আজিজ (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোররাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শেরুয়া বটতলা বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। তিনি উপজেলার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের শেরুয়া দহপাড়া গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে। পরে গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের শিকার শিশুটির মা বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শেরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ।
মামলা সূত্রে জানা যায়, শিশুটির মা-বাবা পেশায় চাতাল শ্রমিক। তাঁরা গত ১৭সেপ্টেম্বর বেলা দশটার দিকে তাঁদের একমাত্র শিশু মেয়েটিকে নিয়ে শেরুয়া দহপাড়া এলাকাস্থ আবু সাঈদের মালিকানাধীন চাতালে কাজ করতে যান। এরই ধারাবাহিকতায় ওইদিন বেলা পৌনে দুইটার দিকে চাতালে ধান শুকানোর কাজ করছিলেন। আর পাশেই জমির মধ্যে শিশুটি খেলাধুলা করছিল। একপর্যায়ে বৃদ্ধ আব্দুল আজিজ খাবার কিনে দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে শিশুটিকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। এমনকি তার শয়নকক্ষের মধ্যে জামা-কাপড় খুলে শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়। এসময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করেন এবং প্রাথমিক চিকিৎসা ব্যবস্থা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। এরইমধ্যে কৌশলে পালিয়ে যান ধর্ষক বৃদ্ধ আব্দুল আজিজ।
জানতে চাইলে শেরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওই ধর্ষণের ঘটনায় সোমবার থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আব্দুল আজিজকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সেইসঙ্গে তাকে সোমবার বেলা বারোটার দিকে বগুড়ায় আদালতে পাঠানো হয়। এছাড়া ধর্ষণের শিকার ওই শিশুটিকে উদ্ধার করে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

seventeen − 3 =

Back to top button
Close