fbpx
শেরপুর

শেরপুরে সাংবাদিক আমান উল্লাহ খানের চতুর্থ স্মরণসভা

শেরপুর (বগুড়া)সংবাদদাতা
দৈনিক ইত্তেফাকের সাবেক উত্তরাঞ্চলীয় আবাসিক প্রতিনিধি আমান উল্লাহ খানের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভায় বক্তারা বলেছেন, সাংবাদিকতা ও আমান উল্লাহ খান, সংবাদপত্র ও আমান উল্লাহ খান এক সময় প্রায় সমার্থক হয়ে উঠেছিলো উত্তরবঙ্গে। স্বাধীন বাংলাদেশের সবচাইতে প্রভাবশালী, সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ পত্র ‘দৈনিক ইত্তেফাক’-এর সাথে যুক্ত ছিলেন সুদীর্ঘ কালজুড়ে । সাংবাদিক আমান উল্লাহ খান সমগ্র উত্তরবঙ্গকে মেলে ধরেছিলেন ইত্তেকাকের পাতায় পাতায়। উত্তরবঙ্গের সংকট ও সম্ভাবনা, এখানকার মানুষের হাসি-কান্না, সুখ-দুঃখের কথা, দারিদ্র্যপীড়িত জনপদের ব্যাথা-বেদনার কথা ফুটিয়ে তুলেছেন ইত্তেফাকের পাতায়। সাংবাদিকতা যে কত বড় চ্যালেঞ্জিং মিশনারি কাজ সেটা শিখেছিলেন তাঁরই গুরু এই মাটিরই সন্তান এদেশের কিংবদন্তি সাংবাদিক-সম্পাদক মুহঃ আসফ-উদ-দৌলা রেজার কাছে। গুরুর প্রেরণা, পরামর্শ ও নির্দেশনায় ব্রতচারীর মত ছুটে গেছেন নগর থেকে পল্লী, শিল্প-কারখানা থেকে কৃষিভূমিতে। শিক্ষাঙ্গন থেকে কুটির শিল্পাঙ্গনে। উত্তরবঙ্গে আমান উল্লাহ খান হয়ে উঠেছিলেন অপ্রতিদ্ব›দ্বী সংবাদ-ব্যাক্তিত্য। ঈর্ষনীয় জনপ্রিয়তার অধিকারী আর অমিত প্রভাবশালী। পাশাপাশি বগুড়ায় নিজে একটি দৈনিক পত্রিকা প্রকাশ করেছেন নিজের সম্পাদনায়। তাঁর স্মৃতি রইবে বহু কাল। তার জন্মভূমি এই অঞ্চলে স্মৃতি সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া কর্তব্য।
গতকাল ১৫ মার্চ মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় মরহুম আমান উল্লাহ খান প্রতিষ্ঠিত জয়লাজুয়ান ডিগ্রি কলেজ আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তারা এ সব কথা বলেন। কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাকের সাবেক চিফ রিপোর্টার প্রবীণ সাংবাদিক আকরাম হোসেন খানের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক যুগ্ম পরিচালক আব্দুর রউফ খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মেজর (অবসর প্রাপ্ত) মুক্তিযোদ্ধা জাফর উল্লাহ খান, শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম, অধ্যক্ষ হোসেন আলী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক খান, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, সুঘাট ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এস এম শাহাদত হোসেন, কে এম আমিনুল ইসলাম, সুঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান জিন্নাহ, আওয়ামীলীগ নেতা টি এম আব্দুল গফুর, আশরাফুল আলম আইয়ুব খান, কামরুল ইসলাম, সুঘাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুর ইসলাম, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন বাবলু, অত্র কলেজের শিক্ষক গোলাম রসুল, শহিদুল ইসলাম, ছাত্র সজিব মন্ডল, রিফাত আহম্মেদ, তিন্নি খাতুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রয়াত আমান উল্লাহ খানের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং শেষে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়।
প্রসঙ্গত: ১৯৬৪ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরামর্শে দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া আমান উল্লাহ খানকে দৈনিক ইত্তেফাকের উত্তরাঞ্চলীয় ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি হিসাবে নিয়োগ দেন। সাংবাদিকতায় যোগদানের মাধ্যমে তিনি কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৭৩ সালের সাধারণ নির্বাচনে তিনি বগুড়া-৫ শেরপুর-ধুনট আসন থেকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭৪ সালে তার প্রচেষ্টায় শেরপুর থানা স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও বগুড়ায় পল্লী উন্নয়ন একাডেমী স্থাপিত হয়। এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহযোগিতায় শেরপুর শহীদিয়া কামিল মাদ্রাসায় টাইটেল (কামিল) ক্লাস চালু করেন। মরহুম আমান উল্লাহ খান স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পত্রিকা দৈনিক বাংলাদেশেরও প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক। তিনি আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন মরহুম আমান উল্লাহ খান বিগত ২০১৮ সালের ১৫ মার্চ ইন্তেকাল করেন।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

five × 3 =

Back to top button
Close