বগুড়া সংবাদ ডটকম (শেরপুর প্রতিনিধি কামাল আহমেদ): বগুড়ার শেরপুরের কচুয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ২৮ মার্চ বুধবার দিনব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিচিত্রার নর্তকীর নৃত্যে অশ্লিলতার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই রাতেই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিফ ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাসুম করিমকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। পরে মুচেলিকা দিয়ে অভিযুক্ত আটকদ্বয় ছাড়া পায় বলে জানিয়েছেন পুলিশ।জানা যায়, উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের কচুয়াপাড়া দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রতিবারের ন্যায় এবারও গত ২৮ মার্চ বুধবার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। দিনের অংশে ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান শেষ করলেও সন্ধ্যার পরে ওই বিদ্যালয় মাঠের মঞ্চে শুরু হয় উপজেলার বাইরে থেকে নিয়ে আসা বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মী তথা বিচিত্রার নর্তকীদের অশ্লিল নাচ। ম্যানেজিং কমিটির ব্যবস্থাপনায় বিদ্যালয়ের মঞ্চে এহেন অশ্লিল নাচ দেখতে পেয়ে এলাকার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ম্যানেজিং কমিটির এহেন ন্যাক্কারজনক ব্যবস্থায় বিদ্যালয়ের শিক্ষা কর্মকান্ডের ভবিষ্যৎ নিয়ে এলাকার অভিভাবক ও সচেতন মহলে নানা উদ্বেগ প্রকাশ পায়। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক শামীম হাসান ওই বিদ্যালয় চত্বর থেকে প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিফ ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাসুদ করিম আটক করে থানায় আনেন।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মধ্যস্থতায় এবং অভিযুক্ত শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ভবিষ্যতে আর এহেন কর্মকান্ড না করার প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতেই তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন