বগুড়া সংবাদ ডট কম(ধুনট প্রতিনিধি ইমরান হোসেন ইমন):বগুড়ার ধুনটের ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ফরহাদ হোসেনের বিরুদ্ধে ভূয়া প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার অভিযোগ উঠেছে। বিকালে ধুনট মডেল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৯জন ইউপি সদস্য এ অভিযোগ করেছেন।সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ওই ইউনিয়নের ৭,৮,৫নং ওয়ার্ড সদস্য সুলতানা জাহান বলেন, গত ১৯ মার্চ ভোর রাতে ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল হোসেন শ্যামল তালুকদার ব্রেন ষ্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরন করেন। তিনি জীবদ্দশায় কোন প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার জন্য কোন সভা করে নাই এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগতও করা হয়নি। কিন্তু ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল তালুকদারের মৃত্যুর কয়েকদিন পরেই ইউপি সচিব ফরহাদ হোসেন কোন সভা না করে এবং কোন ইউপি সদস্যকে না জানিয়ে গোপনে তার তার পছন্দের ব্যক্তিকে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত করে ভূয়া তালিকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন। এবিষয়ে গত ২৫ মার্চ ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ৯জন ইউপি সদস্য লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এছাড়া ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুর পর থেকে ইউপি সচিব অফিসে না আসায় জনগনের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন, আহসান হাবিব, আব্দুল আলিম, বাবু মিয়া, রফিক মিয়া, শহিদুল ইসলাম, মনোতোষ মন্ডল ও আরজিনা খাতুন উপস্থিত ছিলেন।
তবে ইউপি সচিব ফরহাদ হোসেন বলেন, আমি কয়েক দিনের ছুটিতে রয়েছি। তাই অফিসে যাওয়া হচ্ছে না। এছাড়া প্যানেল চেয়ারম্যানের বিষয়ে একটি তালিকা জমা দিয়েছিলাম। কিন্তু অন্যান্য ইউপি সদস্যদের অভিযোগের কারনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবে।
ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিয়া সুলতানা জানান, প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিল কিনা এজন্য কাগজপত্র দেখতে হবে। তাই কাগজপত্র দেখে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন