বগুড়া সংবাদ ডট কম (নামুজা প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন) : ৮৫বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা পায়নি, দালালের খপ্পড়ে পড়ে টাকা গচ্ছা গেলো ভিক্ষুক আলতাফের!। বিবরণে প্রকাশ, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মাঝিহট্ট ইউপির ছাতুয়া ফকির পাড়া গ্রামের জনৈক আজিজার রহমান একই গ্রামের মৃত সুজা মিস্ত্রির পুত্র ভিক্ষুক আলতাফ মিস্ত্রি (৮৫) এর নিকট থেকে বিগত দেড় বছর পূর্বে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেওয়ার কথা বলে ২৪শ’ টাকা, ৪কপি ছবি ও ভোটার আইডি কার্ড গ্রহন করেন। আলতাফ মিস্ত্রি গত ২৩ মার্চ নামুজায় সাংবাদিকদের সামনে অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ দিনেও আজিাজর রহমান বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিতে পাড়েনি, আমি বার বার টাকা ফেরত চাইলে সে ভোটার আইডি কার্ড ও ছবি ফেরৎ দিলেও উৎকচ নেওয়া টাকা ফেরৎ দেয়নি। আলতাফ মিস্ত্রি শারীরিকভাবে অসুস্থ তার পরিবারে স্ত্রী, স্বামী পরিত্যক্তা দুই কন্যা ও এক নাতনীসহ মোট ৫ সদস্য বিশিষ্ট সংসার ভিক্ষা করে চালায়। এ ব্যাপারে ২৪ মার্চ এ ব্যাপারে আজিজার রহমানের নিকট জানতে চাওয়া হলে তিনি, জানান আমার কাছে থেকে সে ২৪শ টাকা পাবে সময় মত দেওয়া হবে। তিনি আরও জানান, তাদের সঙ্গে আমার টাকা লেনদেনের একটা ব্যাপার আছে। ঐ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হেনজেলারের নিকট জানতে চাওয়া হলে, তিনি জানান বিষয়টি তার জানা নেই। মাঝিহট্ট ইউপি চেয়ারম্যান মীজা গোলাম হাফিজ সোহাগের জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, বয়স্ক ভাতার নামে যদি কেউ টাকা গ্রহন করে তদন্ত সাপেক্ষে তার আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন