বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান): জমকালো উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বগুড়া শাজাহানপুরের ডেমাজানীতে শেখ রাসেল স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেণ্টের যাত্রা শুরু হলো। আর এই টূর্ণামেণ্টেকে ঘিরে ফুটবল প্রেমী মানুষের মাঝে দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ। বিকেলে ডেমাজানী শহীদ মোখলেছুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ডেমাজানী জনকল্যাণ সমিতির আয়োজনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে টুর্নামেণ্টের উদ্বোধন করেন বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম। উদ্বোধনী খেলায় রংপুর জয় স্পোটিং ক্লাবকে ২-১ গোলে হারিয়ে বিজয়ী হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে জয়পুরহাট রেঁনেসা ক্লাব।
ডেমাজানী জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আসাদুর রহমান দুলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন সিআইপি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মকবুল হোসেন, শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাছুদুর রহমান মিলন।
ক্রীড়া সংগঠক জামিলুর রহমানের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, শাজাহানপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মাশরাফি হিরো, আসাতননেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি প্রভাষক শামীমা জেসমিন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মান্নান, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ আবু জাফর আলী, জনকল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিমান, ডেমাজানী শ.ম.র উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ্ আহম্মদ আল মুতী মামুন, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি কামরুজ্জামান মাসুদ, সদস্য আলমগীর হোসেন স্বপন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম-সম্পাদক জিয়াউল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক নূরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিনহাজ উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মতিন মেম্বার প্রমুখ।
খেলার ধারা বর্ণনায় বরাবরের মত এবারেও ছিলেন উত্তরাঞ্চলের আলোড়ন সৃষ্টিকারী ধারাভাষ্যকার বহুভাষি খোরশেদ রায়হান। কয়েক হাজার ক্রীড়ামোদী দর্শকের উপস্থিতিতে ফিফা থিম স্যাং এর মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। থিম স্যাং এর সুরে সুরে কালো মুজিব কোট পরিহিত সুসজ্জিত একদল শিশু জাতীয় পতাকা ও ফিফা পতাকা নিয়ে মাঠের চারপাশ পরিদর্শন করে মাঠের মাঝখানে অবস্থান নেয়। এরপর জাতীয় সঙ্গীতের সুরে সুরে অতিথিবৃন্দ জাতীয় পতাকা, ক্রীড়া পতাকা ও বৃহদাকার ক্রীড়া বেলুন উত্তোলন করেন। সব শেষে গুচ্ছ গুচ্ছ রঙ্গীন বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে টুর্নামেণ্টের উদ্বোধন করা হয়। ফেস্টুনসহ শতাধিক রঙ্গীন বেলুন যখন ডেমাজানীর আকাশে ছড়িয়ে পড়ছিল তখন মুহুর্মুহু পটকা, আতশবাজি আর হাজারো দর্শকের করতালিতে ডেমাজানী খেলার মাঠ উদ্ভাসিত হয়ে ওঠে। অতিথিবৃন্দ আশা প্রকাশ করেন মহান স্বাধীনতার মাসে আয়োজিত শেখ রাসেল স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেণ্ট হাজার হাজার ফুটবল প্রেমী মানুষকে আনন্দ দেয়ার পাশাপাশি সমাজ থেকে জঙ্গীবাদ, মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতনসহ সামাজিক অপরাধ সমূহ নির্মূলে ভূমিকা রাখবে। গ্রাম এলাকায় প্রতিবছর ফুটবলের এতবড় আয়োজনের জন্য টুর্নামেণ্টের প্রধান পৃষ্ঠপোষক জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলুর ভূঁয়সী প্রশংসা করেন অতিথিবৃন্দ। আগামী শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টায় টাঙ্গাইল ও পাবনা জেলার মধ্যে ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন