বগুড়া সংবাদ ডট কম(কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন): অষ্টোলিয়ান হাই কমিশন এর আর্থিক সহযোগিতায় এবং এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন (এএসএফ) এর তত্ত্বাবধানে লাইট হাউসের উদ্দ্যেগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নারীর প্রতি সহিংসতা মোকাবেলায় তাৎক্ষনিক সাড়া ও সহায়তা প্রদান প্রকল্পের উপর সোমবার কাহালুর পাইকড় ইউনিয়নের নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সদস্য ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্বে করেন পাইকড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিটু চৌধুরী। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন (এএসএফ) এর প্রোগ্রাম অফিসার তাহমিনা ইসলাম। মতবিনিময় সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন লাইট হাউসের প্রকল্প কর্মকর্তা রশিদা খাতুন। উক্ত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন অত্র ইউ পির সদস্যবৃন্দ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। ইউ পি চেয়ারম্যান মিটু চৌধুরী বলেন, লাইট হাউস একটি সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান যা মানুষের কল্যাণে কাজ করে থাকে। বাল্য বিবাহ এটি একটি সামাজিক ব্যাধি, এর সাথে যারা যারা জড়িত সবাই আইনের আওতায় আসবে, তাই সকলকে সচেতন থাকতে হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডের ইউ পি সদস্য নিজেদের এলাকায় সকল মানুষকে বাল্য বিবাহের কুফল সর্ম্পকে জানাবেন, সরকার যে কঠিন আইনের ব্যবস্থা গ্রহন করেছে তা জানাবেন। সরকার গরিবের জন্য বিভিন্ন ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করেছে, বিনা মূল্যে ছাত্র ছাত্রীদের বই বিতরন করছে, বিনা খরচে মামলা নিষ্পত্তি করার ব্যবস্থা করেছে, লেখাপড়ার ক্ষেত্রে বৃত্তি প্রদান করে থাকে, কিন্তুু অনেক বাবা-মা এ ব্যাপারে সচেতন নয়, কম বয়সে ছেলে মেয়েদের বিয়ে দিয়ে থাকে যা একটা দন্ডনীয় অপরাধ। আজকের পর থেকে এই পাইকড় ইউনিয়নে আর কোন বাল্য বিবাহ যেন না হয় সবাইকে এই শপথ করিয়ে আলোচনা শেষ করেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন