বগুড়া সংবাদ ডট কম(কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন): নাগরনদী এখন বগুড়ার কাহালু ও দুপচাঁচিয়া এবং শিবগঞ্জের কতিপয় বালু ও ভূমি দুস্যদের দখলে। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ নজর দিবেন কি?। নাগরনদীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে প্রতিদিন স্ক্যপিশন মেশিন (মাটি খনন মেশিন) ও শ্যালো মেশিন দিয়ে উত্তোলন করা হচ্ছে শত শত ট্রাক বালূ ও নদীর পাড় কেটে ট্রাক দিয়ে মাটি নিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন ইটভাটায়। ফলে নদীর আশে পাশের গ্রামের বাড়ীঘর ও আবাদি জমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভ্যবনা রয়েছে। নাগরনদী থেকে বালু উত্তোলন ও মাটি নিয়ে যাওয়া বন্ধের জন্য এলাকা বাসী ও উপজেলা আইন শৃংখলা মিটিংয়ে বার বার আলোচনা করা হলেও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে নেওয়া হয়নি কোন জোরালো ভূমিকা। ফলে বেপায়ারা ভাবে কাহালু ও দুপচাঁচিয়া এবং শিবগঞ্জের কতিপয় বালু ও ভূমি দুস্যরা নাগরনদীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে প্রতিদিন স্ক্যপিশন মেশিন (মাটি খনন মেশিন) ও শ্যালো মেশিন দিয়ে উত্তোলন করছে শত শত ট্রাক বালূ ও নদীর পাড় কেটে ট্রাক দিয়ে মাটি নিয়ে যাচ্ছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কাহালুর পাইকড় ইউনিয়নের ভুগোইল কালিতলা হিন্দু পাড়ায় পয়েন্টে ভূগোইল গ্রামের ভূমি দস্যু আব্দুল জলিল, ইন্তেজার, বিপ্লব, শিবগঞ্জ উপজেলার ছাতুয়ার পাড়া গ্রামের রুবেল, রফিকুল ইসলাম ও হাবিবুর মাটি কাটার স্ক্যপিশন মেশিন দ্বারা বিরতি হীন অবৈধ্য ভাবে মাটি খনন ও বালু উত্তোলন করছে। কাহালু উপজেলার বীরকেদার ইউনিয়নের বকুলতলা এলাকায়, চকবন্যা, পাচঁতিতা ও কোলার পাঁথার নামক স্থানে বেশ কয়েকটি পয়েন্টে মাটি কাটার স্ক্যপিশন মেশিন দ্বারা দিনে পর দিন দুপচাঁচিয়া উপজেলার আবু বক্কর, জিয়ারুল, সাগর, রতন, রুবেল, কাহালু উপজেলার বীরকেদার ফকির পাড়ার বায়জিদ, মোকাব্বর, হাসু, বীরকেদার মিয়াপাড়ার মিসবাহ, বীরকেদার আঠালিয়া গ্রামের সুইট, জানিক মাটি খনন ও বালু উত্তোলন করছে। উল্লেখিত পয়েন্ট থেকে প্রতিদিন ভূমি দস্যুরা শত শত ট্রাক মাটি ও বালু বিভিন্ন ইট ভাটায় নিয়ে যাচ্ছে। নাগরনদীর আশে পাশের গ্রাম গুলো দিনদিন ঝুকির মধ্যে পড়ছে। এ ব্যাপারে কাহালু উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোঃ আরাফাত রহমানের সাথে কথা বলা হলে তিনি জানান, অনেক বার ভ্রাম্যমান আদালতের ব্যবস্থা নিয়েছেন, কিন্তু তারা যেতে না যেতেই মেশিন সহ তারা আতœগোপন করে। গত কয়েক দিন পূর্বেই বগুড়ার নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট দ্বারা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে উল্লে¬খিত ভূগোইল কালিতলা এলাকায় দুটি মেশিন জব্দ করে পুড়ে ফেলা হয়েছে। তিনি আরও জানান, পুনরায় তিনি বিকল্প পদ্ধতিতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এ সকল ভূমি দস্যুর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন