বগুড়া সংবাদ ডট কম ( কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন) : কাহালুর বীরকেদার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক এ টি এম আতাউর রহমান বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্যে ও এস এম সির সদস্যের সাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ সংশ্লিস্ট বিভিন্ন দপ্তরে দেওয়া হয়েছে। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়,বীরকেদার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক এ টি এম আতাউর রহমান প্রায়-ই বিদ্যালয়ে দেরিতে উপস্থিত হন। বিদ্যালযে উপস্থিত হয়ে ও শিক্ষক হিসেবে তার দায়িত্ব পালন না করে মোবাইলে ফেসবুক নিযে নাড়াচাড়া করে বেশির ভাগ সময় কাটায। ক্লাসে কখনো তিনি চক-ডাস্টার ব্যবহার করেন না। ক্লাসের ছাত্র/ছাত্রীদেরকে নিজের হাত মুখ পরিস্কার করার পানি আনা নেওয়া বা সেবা যত্নের কাজে ব্যবহার করে। ৫ম শ্রেণীর ছাত্র/ছাত্রীদের দিয়েই মডেল টেষ্ট সহ বিভিন্ন পরীক্ষার খাতা দেখিয়ে নেন। পরীক্ষার সুতরাং বিদ্যালয়ের শিক্ষার্কাযক্রম চরম ভাবে ব্যহত হয় । তাই ছাত্র/ছাত্রীর শিক্ষার মান উন্নয়নে জন্য অভিযোগ কারি অভিভাবক গন অভিযুক্ত শিক্ষককে অন্যত্র বদলীর দাবী জানান। অভিযুক্ত শিক্ষক এ টি এম আতাউর রহমান তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং এ ঘটনার জন্য বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে দায়ী করেন। বীরকেদার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রউফ সরদার জানান, সহকারী শিক্ষক এ টি এম আতাউর রহমানকে বিদ্যালয়ে তার দায়িত্ব পালনের জন্য অনেক বার বলেছি কিন্তু সে আমার কথা কর্ণপাত করেননি। এ ব্যাপারে কাহালু উপজেলা শিক্ষা অফিসার এস এম সারওয়ার জাহান এর সাথে কথা বলা হলে তিনি অভিযোগ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করে বলেন এ ঘটনায় উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসারকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন