বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়া শাজাহানপুরের নয়মাইল জামালপুর এলাকায় ফসলী জমির উপর দিয়ে মাটির ট্রাক যাতায়াতের রাস্তা না দেয়ায় ফরিদ উদ্দিন নামে এক কৃষকের জমিতে লাগানো প্রায় অর্ধশতাধিক কলাসহ গাছ কর্তন করেছে দূর্বৃত্তরা। রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এঘটনায় নয়মাইল জামালপুর গ্রামের মৃত আছির উদ্দিনের পুত্র ফরিদ উদ্দিন বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
কৃষক ফরিদ উদ্দিন জানান, নয়মাইল জামালপুর মৌজার মোট ৮০ শতাংশ জমিতে কলা, চিচিঙ্গা, বটবটি, পিয়াজ ও নিপিয়া ঘাস চাষ করা হয়েছে। বর্তমানে ফসলের ভরা মৌসুম। কলা গাছে কলা ফুলেছে। এমতাবস্থায় নয়মাইল জামালপুর গ্রামের মৃত জাবের উদ্দিনের পুত্র জিয়াউর রহমান পাশের জমি থেকে মাটি কেটে ওই ফসলী জমির উপর দিয়ে মাটির ট্রাকের যাতায়াতের রাস্তা চায়। কিন্তু রাস্তা দিতে রাজি না হওয়ায় শত্রুতা করে রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে জিয়া ও তার সহযোগী মারিয়া গ্রামের আব্দুল খালেক সহ ৪-৫জন ধারালো অস্ত্র নিয়ে এসে কলা বাগানের ৪০-৫০টি কলা গাছ এবং নিপিয়া ঘাস কেটে ফেলে। এতে করে ২০-২২ হাজার টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে কলা বাগানে এলে তারা ধারালো অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে এবং বলে রাস্তা না দিলে আর বাড়াবাড়ি করলে প্রাণে মেরে ফেলবো। এঘটনায় ওই রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত জিয়াউর রহমানের সাথে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।
থানার ওসি জিয়া লতিফুলা ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়ে ওই রাতেই পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। কলা গাছ কাটার সত্যতা পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন