বগুড়া সংবাদ ডট কম (ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট (বগুড়া) থেকে) : বগুড়ার ধুনটে নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং-বাগবাড়ী সড়কের নাংলু খালের উপর ঝুঁকিপূর্ণ ২৭২ জোড়াতালির সেই বেইলী ব্রীজ ভেঙ্গে গিয়ে পাথর বোঝাই ট্রাক খাদে পড়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে পাথর বোঝাই ট্রাক পারাপারের সময় এঘটনা ঘটে।
জানাগেছে, সড়ক ও জনপথ বিভাগ প্রায় ৪৮ বছর আগে জয়শিং-বাগবাড়ী সড়কের নাংলু খালের ওপর স্টিলের বেইলী সেতু নির্মান করে। কিন্তু গত ২৫ বছর যাবত বেইলী ব্রীজটির ট্রামজাম ও ষ্টিল টেকিং সহ বিভিন্ন সরঞ্জামাদী নষ্ট হয়ে ভারী যানবাহন চলাচল অনুপযোগি হয়ে পড়ে। কিন্তু তারপরও সড়ক ও জনপদ বিভাগ মাঝেমধ্যে জোড়াতালি দিয়ে কোন রকমে হালকা যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করে। কিন্তু ভারী যানবাহন চলাচলের কারনে কিছু দিন পরপরই ব্রীজটির জোড়াতালি খুলে আবারও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এভাবে মাঝে মধ্যেই ব্রীজটি ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় জনগনের যাতায়াতে দূর্ভোগ সৃষ্টি হয়। গত ২৫ বছর ধরে এভাবেই ব্রীজটিতে ২৭২টি জোড়াতালি দেওয়া হয়েছে। এসংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন ২০১৪ সালে জুন মাসে সংবাদপত্রে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। কিন্তু তাতেও টনক নড়ে না কর্তৃপক্ষের। সড়ক ও জনপথ বিভাগ ওই ব্রীজের উপর দিয়ে তিন টনের অধিক যাহবাহন চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষনা করে সাইবোর্ড ঝুঁলিয়ে রেখেছে। কিন্তু তারপরও ওই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ক্ষতিগ্রস্থ ব্রীজের উপর দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই ভারী যাহবাহন চলাচল করে আসছিল। বৃহস্পতিবার বিকালে একটি পাথর বোঝাই ট্রাক পারাপার হতে গেলে ব্রীজটি ভেঙ্গে গিয়ে ট্রাকটি খাদে পড়ে যায়।
নাংলু গ্রামের চাঁন মিয়া জানান, গত ৩ মাস যাবত জয়শিং ঘাটের বালু পয়েন্টের ট্রাকগুলো এই ব্রীজের ওপর দিয়ে চলাচলের কারনে ব্রীজটি আরো ক্ষতিগ্রস্থ হয়। একারনেই ব্রীজটি তাড়াতাড়ি ভেঙ্গে গেছে।
বগুড়া সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুজ্জামান জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। কিন্তু খাদে পড়া ট্রাকটি মালিকপক্ষ এখনও অপসারন করেনি। একারনে আমরা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি। কিন্তু মামলা দায়েরের পরও যদি ট্রাকটি নিতে কেউ না আসে তাহলে আমরা ট্রাকটি অপসারন করে ব্রীজটি মেরামতের কাজ শুরু করব।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন