Breaking News

বগুড়ায় যুবদলের নাম ভাঙ্গানো সেই চাঁদাবাজ রতন গ্রেফতার

বগুড়া সংবাদ ডটকম : বগুড়ায় যুবদলের সভাপতি সিপার আল বখতিয়ার এবং অন্যান্য নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে শহরে একটি প্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে চোর রতন অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। শহরের গোদারপাড়া দঃপাড়া এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দিনের ছেলে গ্রেফতারকৃত মঞ্জুরুল হাফিজ ওরফে রতন চোর গত সোমবার রাতে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চাঁদা নিতে গেলে সেখানকার কর্মচারিরা তাকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ রাত পৌনে ১০টার দিকে তাকে আটক করে সদর থানায় নিয়ে আসে। গতকাল মঙ্গলবার পুলিশ তাকে একটি চুরির মামলায় জেল হাজতে প্রেরণ করে। পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার রিজওয়ান আহম্মেদ জানান, সে বিভিন্ন ডাক্তার’র কাছ থেকে চাঁদা নিত। এস.আই আবু সাঈদ জানান, সে একজন হেরোইন খোর এবং ওই এলাকায় চোর হিসেবে পরিচিত। খোঁজ নিয়ে জানাগেছে সে নেতাদের নামে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে চাঁদা নিত। অপরদিকে, চাঁদাবাজির ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা জানিয়ে বগুড়া জেলা যুবদলের সভাপতি সিপার আল বখতিয়ার ও সাংগঠনিক সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম খাদেম এক যৌথ বিবৃতিতে জানান, বগুড়ার যুবদল অত্যান্ত সু-সংগঠিত-সুশৃংখল ও সুনামের সাথে রাজনৈতিক কর্মসূচি পরিচালনা করে আসছে। যুবদলে কোন সন্ত্রাস, মাদক ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ’র স্থান নেই। একটি স্বার্থন্বেসী মহল যুবদলের নামে অপপ্রচার চালিয়ে কতিপয় বিপথগামী যুবকদের লেলিয়ে দিয়ে এহেন অপকর্ম করছে। আমরা বগুড়াবাসী ও প্রশাসনকে উদ্বাত্ত আহবান জানাচ্ছি যে, যুবদলের নামে কেউ চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করলে তাকে পুলিশ ও র‌্যাবে সোর্পদ করা হোক। নিন্দা জানিয়েছেন, সদর থানা যুবদলের সভাপতি রাফিউল ইসলাম রুবেল, আহম্মেদ বিন বিল্লাহ শান্ত, আব্দুল হান্নান, টপিন, হীরা, এনামুল হক মানিক, শামীম, আলতাফ প্রমুখ।