বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস.আই সুমন) :শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় বগুড়া সদরের গোকুল ছ’মিল বন্দরে যুবদল ও সেচ্ছাসেবক দলের দলীয় কোন্দলে প্রতিপক্ষের রাম দা’য়ের কোপে
শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সম্পাদক সনি(২৮)নিহত হয়েছে।
নিহত সনি গোকুল উত্তর পাড়া গ্রামের মোঃ জামাত আলীর পুত্র বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় গুরুত্বর আহত ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মিজানুর রহমান(৩২) তার স্ত্রী নেশা আক্তার(২৫) ও ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক জি এম (৩০) শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়,গত ২০ ফ্রেব্রুয়ারী সন্ধ্যা রাতে গোকুল ছ’মিল বন্দরে ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মিজানুর রহমানের সাথে দলীয় কোন্দলে ইউনিয়ন যুবদল নেতা রাসেল ইসলামের কথাকাটির এক পর্যায়ে মিজানুর রহমানের লোকজন রাসেল ইসলাম কে কুপিয়ে জখম করে পরে রাসেলকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টায় ২০/২৫ জন দূর্বৃত্তরা স্ব-সস্ত্রে মিজানের বাড়িতে গিয়ে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সম্পাদক সনি,সাধারন সম্পাদক জিএম কে কুপিয়ে জখম করে ঐ সময় মিজান বাড়িতে বাথরুমে গোসল করছিলো মারপিটেরর ঘটনা টের পেয়ে সে প্রানভয়ে বাড়ির প্রাচীর টপকিয়ে দৌড় দিলে দূর্বৃত্তরা তাকে পিছনে ধাওয়া করে জমিতে ফেলে রেখে দু পায়ের ও হাতের রগ কেটে দেয়। এসময় মিজানের স্ত্রী নিশা আক্তার তার স্বামীকে রক্ষা করতে আসলে তাকেও মারপিট করে গুরুত্বর আহত করে চলে যায় দূর্বৃত্তরা।
এ সংবাদ পেয়ে বগুড়া সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেকে ভর্তি করে দেয়,সেখানে চিকিৎসাধী অবস্থায় বিকালে সনি মারা যায়। লাশ মর্গে রয়েছে বলে সদর থানার এস আই জাহিদ জানান।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন