বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলা শাখার উপদেষ্টা বগুড়া পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর খোরশেদ আলমকে গুলি করে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে এবং দূস্কৃতিকারী মাসুম কামালকে দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সুজন শাজাহানপুর উপজেলা শাখা। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের মাঝিড়া বটতলায় এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।
সুজন উপজেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক সাজেদুর রহমান সবুজের সভাপতিত্বে এবং য্গ্মু সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সুজন জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক হুমায়ন ইসলাম তুহিন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সুজন উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডা. আনিছুর রহমান, শাজাহানপুর প্রেসক্লাবে সাধারন সম্পাদক শাহাদত হোসেন, সুজন মাঝিড়া ইউনিয়ন শাখার সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন। এসময় সুজন জেলা শাখার সমন্বয়কারী আলমাস আলী খান চঞ্চল, উপজেলা শাখার সহ সভাপতি আব্দুর রহমান, সাংবাদিক শাহিন আলম, য্গ্মু সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব রেজাউল করিম, হোসনেয়ারা সরকার, সাংবাদিক রমজান আলী রঞ্জু, মাঝিড়া ইউনিয়ন শাখার সভাপতি গোলাম রব্বানী, খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন শাখার সভাপতি আব্দুল কাদের, আড়িয়া ইউনিয়ন শাখার সভাপতি আপেল মাহমুদ, সাধারন সম্পাদক নাইম সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, সোমবার বেলা পৌনে ১১ টার দিকে বগুড়া শাজাহানপুর থানার অন্তর্গত ফুলদিঘী মধ্যপাড়ায় পৌরসভার নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাস্তা ও প্রতিবেশীদের বাড়ির মূল গেট বন্ধ করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণে বাঁধা দেয়ায় ১৩ নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কাউন্সিলর খোরশেদ আলমকে লক্ষ্য করে ৪ রাউন্ড গুলি ছুড়ে সাবেক যুবলীগ নেতা নামধারী বগুড়া আলতাব আলী সুপার মার্কেটের সাবেক সাধারন সম্পাদক মাসুম কামাল মাসুম (৫০)। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সনাতন চক্রবর্তির নেতৃত্বে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছিলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়ে যায় মাসুম কামাল। পরে মাসুম কামালের বাড়ি তল্লাশী করে তার স্ত্রীকে আটক করে এবং একটি মটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ। এ ঘটনায় পৌর কাউন্সিলর খোরশেদ আলম বাদি হয়ে শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন