বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস.আই সুমন) : বগুড়া সদরের আশোকোলা গ্রামে প্রায় ২শ বিঘা জমির পানি বন্ধ করে রাস্তা নির্মান। বোরো মৌসুমে ইরিগেশন অনিশ্চিত।

জানা গেছে, বগুড়া সদরের নুনগোলা ইউনিয়নের আশোকোলা বন্দর হইতে মধ্য পাড়া যাওয়ার নতুন পাকা রাস্তা নির্মান কাজ শুরু হয়েছে। রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় গভীর নলকূপের পানি পারাপারের জন্য কালভাট থাকলেও তা বন্ধ করে দিয়ে রাস্তার নির্মান কাজ শুরু হয়েছে। কালভাটের মুখ বন্ধ থাকলে চলতি ইরি মৌসুমে প্রায় ২শ বিঘা জমি ইরিগেশন করা সম্ভব হবে না বলে এলাকার কৃষকদের কাছ থেকে জানা গেছে। এবিষয়ে কৃষক মৃত আছির উদ্দিনের পুত্র আব্দুস সামাদ জানান, মো: জাহিদুর রহমান এর গভীর নলকূপ থেকে আমি প্রায় ৫ বিঘা জমিতে ইরি সহ বিভিন্ন রবি শস্য উৎপন্ন করে থাকি। নতুন রাস্তার হওয়ার কারনে ঠিকাদার পানি পারাপারের কালভাটের মুখ বন্ধ করে দেয়। এতে করে আমি ছাড়াও মতিয়ারের পুত্র শাহিদুল ইসলাম এর ৬-৭ বিঘা, আব্দুল জলিলের পুত্র রনি ১-২, শাহেব আলীর পুত্র ২-৩ বিঘা, মৃত রফাতুল্লাহ্ পুত্র লুৎফরের ৪-৫ বিঘা, মৃত জমির উদ্দিনের পুত্র ছায়ের উদ্দিনের ২-৩ বিঘা, মফিজ উদ্দিনের পুত্র দুদুর ১ বিঘা, বদর উদ্দিনের পুত্র আজিজার রহমান এ ২-৩ বিঘা, মৃত হাতেম আলীর পুত্র বাদশা মিয়ার ৫-৬ বিঘা, মৃত লছর পুত্র তোজাম্মেল এর ৫-৬ বিঘা সহ আরো অন্যান্য কৃষকদের জমি জাহেদুর রহমান এর গভীর নলকুপ থেকে পানি নিয়ে চাষাবাদ করা হয়। দ্রুত উক্ত সমস্যা সমাধানের জন্য বগুড়া সদর উপজেলা প্রকৌশলী সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অত্র এলাকার কৃষকবৃন্দ। এব্যাপারে সদর উপজেলা প্রকৌশলী মোমিনুর রহমান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, সমস্যাটি দ্রুত সমাধানের জন্য আমি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন