বগুড়া সংবাদ ডট কম (শিবগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুর রহমান রানা) : বগুড়ার শিবগঞ্জ মোকামতলা বন্দরে রাস্তা পারাপারের সময় বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে শিশু মোঃ হামিম (৭) নিহত। বাসকে ধাওয়া করে চাল সহ বাস আটক। সরজমিনে গেলে জানা যায় বগুড়া জেলার গাবতলি থানার পাঁচ পাইকার গ্রামের হজরত আলীর ছেলে হামিদ তার মায়ের সাথে মোকামতলা বন্দরে তার চাচা সাজেদুর রহমান সাজু মোবাইল সার্ভিসিং সেন্টারে দেখা করতে আসে। তার চাচার দোকান রাস্তার বিপরীত পার্শ্বে হওয়ায় রাস্তা পারাপারের সময় রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা গাইবান্দা গামী বিআরটিসি ঢাকা মেট্রো-ব,১১১৯৮১ শিশু হামিদকে সজোরে ধাক্কা দেয়। চালক গাড়িটিকে গতি নিয়ন্ত্রন না করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এতে করে শিশুটি চাকার তলে পিষ্ট হয়ে তার দেহ চারিদিকে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দেহটিকে আশে-পাশের লোকজন দেখলেও উদ্ধারের জন্যে এগিয়ে আসেনি কেউ। পরে তার চাচা অধ্ব অঙ্গ শিশুটিকে বাচাঁনোর চেষ্টায় হাসপাতালে নেওয়ার চেষ্টা করলেও পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়। এদিকে ঘটনার সাথে-সাথে মোকামতলার পুলিশ সার্জেন্ট এম,এ মুমিন বাইক নিয়ে পালিয়ে যাওয়া বাসটির পিছনে ধাওয়া করে। চালক গাইবান্ধার দিকে না গিয়ে জয়পুরহাট রোডের দিকে বাসটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। প্রায় দুই কিঃ মিঃ ধাওয়া করার পর গুপিনপুর নামক এলাকায় বাইক নিয়ে এম,এ মুমিন বাসটির সামনে গিয়ে গতিরোধ করে। বাস চালক বাসটি রেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে আটক করে। আটককৃত বাস চালক একলাস হোসেন (৩১) জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থানার পুর্ব মাথাপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে। এদিকে এ ঘটনার সাথে সাথে উত্তেজিত জনতা প্রায় এক ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখে। এতে করে রাস্তার দুই ধারে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে যান চলাচল সাভাবিক করে। এ ব্যাপারে মোকামতলা শহর ও যানবাহন পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনার সাথে সাথে সার্জেন্ট এম,এ মুমিন সাহসিকতার সহিত চালক সহ বাসকে আটক করে। প্রচলিত আইনে মামলার প্রস্ততি চলছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন