বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়া শাজাহানপুরের ডেমাজানী উত্তরপাড়ায় পল্লী বিদ্যুতায়নে খুঁটি স্থাপনে বাঁধা দেয়ায় এবং দীর্ঘদিনের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করার হুমকি দেয়ায় চরম ভোগান্তিতে রয়েছে গ্রামের ২ শতাধিক মানুষ। এঘটনায় গ্রামবাসির মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
আমিনুর রহমান, ইজাদুল হক ও মনোয়ার হোসেন সহ গ্রামবাসিরা জানান, বর্তমান সরকার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিতে কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের এই সফলতার সুবাদে ডেমাজানী উত্তরপাড়ার প্রায় ২ শতাধিক মানুষের দীর্ঘদিনে ভোগান্তি লাঘবে বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয় পল্লী বিদ্যুৎ অফিস। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি খুঁটি স্থাপনের কাজও সম্পন্ন করা হয়েছে। আর মাত্র ১টি খুঁটি স্থাপন করলেই খুঁটি স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হবে। এমতাবস্থায় পল্লী বিদ্যুৎ লোকজন গ্রামের চলাচলের রাস্তার পাশে ওই খুঁটি স্থাপন করতে গেলে রাস্তার পাশের জমির মালিক ডেমাজানী মোন্নাপাড়ার মোহাম্মদ আলীর দু’পুত্র নজিবুল ইসলাম ও আমানউল্যা তাতে বাঁধা দেয়। খবর পেয়ে শাজাহানপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির-০২ এর ডিজিএম প্রকৌশলী মাসুম আহমেদ ঘটনাস্থলে এসে জমির মালিকদের সাথে কথা বলেন এবং পরিকল্পনা অনুযায়ী খুঁটি স্থাপন করা হবে বলে জানান। কিন্তু তারপরেও খুঁটি স্থাপনে বাধা দেয়ায় গ্রাম বিদ্যুতায়নে বাঁধাগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। অপরদিকে খুঁটি স্থাপনকে কেন্দ্র করে গ্রামের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করার হুমকি দিয়ে রাস্তা কেটে ফেলে পাশের জমির মালিক নজিবুল ইসলাম ও আমানউল্যা। এঘটনায় বৃহস্পতিবার গ্রামবাসি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট গিয়ে অভিযোগ দায়ের করলে নির্বাহী অফিসার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) কে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেন। এরপর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ঘটনাস্থলে গিয়ে জমির মালিককে রাস্তা বন্ধ না করতে নির্দেশ দেন।
জমির মালিক আমানউল্যা জানান, ওই রাস্তা ইউনিয়ন পরিষদের ম্যাপের রাস্তা নয়। গ্রামবাসির পায়ে চলাচলের জন্য ব্যক্তি মালিকানা জমির উপর দিয়ে রাস্তা দেয়া হয়েছে। এখনও সেই রাস্তা ঠিকই আছে। ওই রাস্তার পাশ দিয়ে জমির মালিকদেরকে কিছু না জানিয়ে অপরিকল্পিত ভাবে খুঁটি স্থাপন করতে থাকলে তাতে বাধা দেয়া হয়েছে। ওই খুঁটি স্থাপন করা হলে পরবর্তিতে জমিতে চাষাবাদ ও স্থাপনা নির্মাণে বড় ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হবে।
শাজাহানপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির-০২ এর ডিজিএম প্রকৌশলী মাসুম আহমেদ জানান, জমির মালিকের সাথে কথা বলার পরও এখনো খুঁটি স্থাপন করা সম্ভব হয়নি। জমির মালিককে সহযোগীতা করার জন্য বলা হয়েছে। তা না হলে তার বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাসুদুর রহমান জানান, জমির মালিককে রাস্তা বন্ধ না করতে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। তারপরও রাস্তা বন্ধ করার চেষ্টা করলে পরবর্তিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন