বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়ার শাজাহানপুরে পুলিশ হেফাজতে বিএনপি নেতা মাসুদুল হক পিন্টুর (৫০) মৃত্যুর ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে পুলিশের সহযোগীতায় মারপিট করে হত্যার অভিযোগে নিহতের স্ত্রী খায়রুন্নেছা বাদি হয়ে সোমবার জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৩০২/৩৪/১০৯ দঃবিঃ ধারায় এই মামলা (মামলা নং-২১০সি) দায়ের করেন। মামলায় প্রতিপক্ষ এনামুল হক মিল্টন (৪৬), নিউটন (৩০), কৈগাড়ী ফাঁড়ির ইনচার্জ আনিছুর রহমান (৪০), এসআই রফিকুল ইসলাম (৩৮), কনষ্টেবল আজিবুল (৪০) ও সাহেদ আলী (৪০) সহ এজাহার নামীয় ১২ জনকে আসামী করা হয়েছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, প্রতিপক্ষ মিল্টন ও নিউটন গংদের সাথে পুকুর ও জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলে আসছে। এবিষয়ে সিভিল ও ফৌজদারী মোকর্দ্দমা বিচারাধিন রয়েছে। এমতাবস্থায় বিরোধের জের ধরে ১৯ আগষ্ট মিল্টন বাদি হয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগে শাজাহানপুর থানায় মামলা (নং-১৯) দায়ের করে।
ওই মামলার জের ধরে ২২ আগষ্ট দুপুরে কৈগাড়ী ফাঁড়ির ইনচার্জ আনিছুর রহমান সঙ্গীয় ৩ পুলিশ সদস্য প্রতিপক্ষ মিল্টন গংদের বাড়িতে গিয়ে শলাপরামর্শ করে আসামীদের সাথে নিয়ে মাসুদুল হক পিন্টুর বসতবাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এসময় পিন্টু এগিয়ে এলে পুলিশ ও আসামীরা পিন্টুকে বেধড়ক মারপিট করে অন্ডকোষসহ শরিরের বিভিন্ন স্থানে ফুলা ও জখম করে। একপর্যায়ে পিন্টুর মৃত্যু নিশ্চিত করে দায় এড়ানোর জন্য সিএনজি অটোটেম্পুযোগে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে আত্মীয়-স্বজন ছাড়াই পুলিশি পাহারায় পিন্টুর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করা হয় এবং পরের দিন পুলিশি ত্বত্তাবধানে পোষ্টমর্টেম রিপোর্ট তৈরী করা হয়। এরপর কাগজে কলমে লাশ স্বজনদের হাতে হস্তান্তর দেখানো হলেও প্রকৃতপক্ষে স্বজনদের হাতে হস্তান্তর না করে পুলিশি পাহারায় লাশের দাফন সম্পন্ন করা হয়।
নিহত পিন্টুর স্ত্রী, সন্তান ও তার ভাইয়েরা জানান, আসামীরা হত্যার হুমকি-ধামকিসহ বিভিন্ন ভাবে দাবান-শাসানে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।
জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের এ্যাডভোকেট স্বপন কুমার শাহা জানান, জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত (৩) এর বিচারক আবু রায়হানের নিকট মামলার ফাইল জমা দেয়া হয়েছে। মামলার তদন্তভার বিষয়ে এখনো জানা যায়নি। মঙ্গলবার তা জানা যাবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন