বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এসআই সুমন) : বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাড়িঘর, মাইক্রোবাস ভাংচুর, লুটপাট ও মারপিট, আহত ৫, থানায় অভিযোগ।

সরেজমিনে ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে রবিবার বিকালে লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নে রহমতবালা গ্রামের মৃত বিরাজ উদ্দিনের পুত্র জাহিদুর রহমানের শিশু কন্যা ভবানীগঞ্জ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী জ্যোতি (৮) এর মাথার ক্যাপ হারিয়ে গেলে একই এলাকার আজমলের কন্যা আলিফের কাছে পাওয়া যায়। জ্যোতির মা আলিফের পরিবারের সদস্যদেরকে বলতে গেলে তারা উম্মে কুলসুম এর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে বজলার রহমানের পুত্র আজমল হোসেন, আব্দুল কুদ্দুস, মানিক মিয়া, শামীম আহম্মেদ, বাচ্চা মিয়ার পুত্র সবুজ মিয়া, আবুলের পুত্র আব্দুল মালেক, বাবু মিয়া অঙ্গুর প্রামানিকের পুত্র শাহ-আলম সহ ২০/২৫ দেশীয় অস্ত্র, লোহার রোড, রামদা, কাঠের লাঠি সহ তাদের উপর হামলা চালিয়ে জাহিদুর রহমানের বাড়ীঘরে ও মাইক্রোবাস ভাংচুর ও অন্যান্য জিনিসপত্র লুটপাট করে এবং তাদের পরিবারে সদস্যদের বেধড়ক মারপিট করে। এতে জাহিদুলের স্ত্রী উম্মে কুলসুম, তার সন্তান সুমন, শামীম, সোহেল ও জাহিদুল গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় বগুড়া সদর থানা অভিযোগ করলে থানার এস আই নুর-আলম সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনা স্থলে পৌছে দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস প্রদান করেন। এ ব্যাপারে জাহিদুর রহমান জানান এতে তাদের প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন