বগুড়া সংবাদ ডট কম (সিজুল ইসলাম, বগুড়া) : লিটল থিয়েটার বগুড়ার আয়োজনে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার, বগুড়া থিয়েটার, কলেজ থিয়েটার, আকবরিয়া গ্রুপ, সূর্যোদয় ব্যায়াম সংঘ এর সহযোগিতায় ১৯ ডিসেম্বর শুক্রবার বগুড়ার শহীদ টিটু মিলনায়তন চত্ত্বরে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব ১৪২৪ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০ টায় পিঠা উৎসব ১৪২৪ এর উদ্বোধন হয়। শীতের উষ্ণতা বাড়ানোর জন্য গ্রামে তুষের গুড়ায় আগুন দিয়ে ব্যবহার করা হয় আইলা যাকে বহির্বিশ্বে রুম হিটার নামে পরিচিত। আইলা প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদ বগুড়ার চেয়ারম্যান ডাঃ মকবুল হোসেন। উদ্বোধনের সময় লিটল থিয়েটারের নাট্যকর্মীরা সুকান্ত ভট্টাচার্যের “প্রার্থী” কবিতা আবৃত্তি করে। আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন বগুড়া থিয়েটারের সভাপতি এ এইচ আযম খান। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বগুড়ার জেলা প্রশাসক নুরে আলম সিদ্দিকী, বিশেষ অতিথি বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দিন, জেলা পরিষদ বগুড়ার প্যানেল চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ খান রনি, বগুড়া প্রেস ক্লাব সভাপতি মোজাম্মেল হক লালু, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট বগুড়ার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন মিন্টু। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন লিটল থিয়েটার এর পরিচালক ও বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক হাসান মযনা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কলেজ থিয়েটার বগুড়ার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সিজুল ইসলাম এবং নাট্যকর্মী নিশু ইসলাম।

প্রতি বছরের মত এবছরও বগুড়ার স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো পিঠার পসরা নিয়ে স্টল বসায়। মোট ১৬ টি স্টলে চিতই পিঠা, ভাপা পিঠা, পাটি সাপটা, নাট পিঠা, মুগডালের চষী, কাউনের পায়েশ, নকশি হালুয়া, নারকেলের সন্দেশ, চিংড়ি কুশলি পিঠা, পাকান পিঠা, বকুল পিঠা, ঝিনুক পিঠা, পাতা পিঠা, শঙ্খ পিঠা, মাসকালাই পিঠা, মাছ পিঠা, জামাই পিঠা, বিস্কুট পিঠা, পিঠা, লাভ পিঠা, হৃদয়হরণ পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, ক্ষীর পুলি পিঠা, ঝাল পুশলি পিঠা, গাজরের পায়েস, তিলের মোয়া, গোলাপ পিঠা সহ নানান স্বাদের বাহারি নামের প্রায় ৭০ রকমের পিঠা প্রদর্শিত হয়।
পিঠা উৎসবে দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান, নৃত্য, কবিতা আবৃত্তি, পালা এবং নাটক পরিবেশন করে বগুড়ার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীবৃন্দ। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি ছিল চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। ক, খ, গ এবং ঘ বিভাগের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন পিঠা এবং পৌষমেলার নানন দৃশ্য ফুটে তোলে তুলির ছোঁয়ায় ছোট্ট চিত্রশিল্পীরা। অতিথিবৃন্দ চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং পিঠার স্টলগুলো পরিদর্শন করেন। দিনব্যাপী এ আয়োজনে শিশুদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। সন্ধ্যায় সমাপনী অনুষ্ঠানে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন বগুড়ার পুলিশ সুপার অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ আসাদুজ্জামান বিপিএম।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন