বগুড়া সংবাদ ডটকম : বগুড়া সদরের সাবগ্রাম কুরশাপাড়া এলাকায় ছুরিকাঘাতে শাহীন আকন্দ(৩৫) নামে এক ব্যক্তি খুন হয়েছে। সে মৃত আলহাজ এলাহী বকস্ এর ছেলে।

তিনি একটি রিক্সা গ্যারেজ চালাতেন। হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ একই এলাকার সালাম (৩০) ও সোহাগ রহমান (২৮) নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে।

বগুড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, গ্রেফতারকৃতরা মদ খেয়ে এসে রাত ২টার দিকে শাহীনের গ্যারেজের সামনে এসে উশৃঙ্খল আচরণ করছিলো। এসময় গ্যারেজ মালিক বিষয়টি টের পেয়ে এগিয়ে এসে গভীর রাতে গ্যারেজের সামনে কেন তারা এমন করছেন জানতে চান। এতে তাদের মধ্যে কথাকাটকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে শাহীনের ওপর চড়াও হয় এবং ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় শাহীনকে বগুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর রাতেই সে মারা যায়। বগুড়া সদর থানা ওসি এমদাদ হোসেন জানায়, খবর পেয়েই তারা সাবগ্রাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে নেওয়া হয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এর আগে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে নিহত শাহীন আকন্দের বড় ভাই জাহাঙ্গীর হোসেনকে খুন করা হয়। এর কিছুদিন পর তার পিতা মারা গেলে একমাত্র অংশিদার শাহীনকে হত্যা করা হলো।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন