বগুড়া সংবাদ ডট কম (কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন) : আইসিটি বেইজড্ রেসপনস্ এ্যা-সার্পোট মেকানিজাম টু অ্যাড্রেস ভায়োলেন্স এ্যাগেনেষ্ট উইম্যান এ্যা-গাল্স প্রকল্পের অষ্টোলিয়ান হাই কমিশন এর আর্থিক সহযোগিতায় এবং এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন (এএসএফ) এর তত্তাবধানে লাইট হাউসের আয়োজনে বগুড়ার কাহালুর মালঞ্চার ভালশুন দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধের লক্ষ্যে স্কুল ক্যাম্পইন অনুষ্ঠিত হয়। স্কুল ক্যাম্পইন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভালশুন দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মালঞ্চা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ ইয়াকুব আলী বলেন, কাহালু উপজেলার মালঞ্চা ইউনিয়নে নারী ও শিশু নির্যাতন সহ ধরনের সহিসংতা কমিয়ে মালঞ্চা ইউনিয়নকে মডেল হিসেবে দেখতে চাই। তার জন্য ছাত্র/ছাত্রীদের সার্বিক সহযোগিতা দরকার। লাইট হাউসকে ধন্যবাদ জানাই কাহালুর অনেক ইউনিয়নের মধ্যে মালঞ্চা ইউনিয়নকে তালিকাভূক্ত করায় জন্য। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভালশুন দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএমসি’র সদস্য আব্দুল বাছেদ। স্কুল ক্যাপেইন এর মূল লক্ষ্য/উদ্দেশ্য তুলে ধরেন প্রকল্প কর্মকর্তা রশিদা খাতুন। তিনি তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, নারী ও শিশু সহিংসতার ভয়াবহতা, সহিংসতার আইন ও তাৎক্ষনিক ভাবে কী করণীয় এবং এ্ই সহিংসতা রোধ করার জন্য ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকের ও স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সচেতনতা বৃদ্ধি করা। সহিংসতার শিকার শিক্ষার্থীগণ যেন আবার তার শিক্ষা জীবনে ফিরে যেতে পারেন, এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সে তার সহপাঠি এবং শিক্ষকগণের দ্বারা কোন প্রকার বঞ্চনা এবং বৈসম্যের শিকার না হন, সে লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট স্কুলের শিক্ষক, কমিটির সদস্য এবং অভিভাবকদের সাথে মিটিং’র ব্যবস্থা করা। সার্বিক সহযেগিতায় সুই্ট, মিতু খাতুন, নাছিমা খাতুন ও সিরাজম মনিরা ও শিক্ষক মন্ডলী। স্কুল ক্যাপেইন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন ভালশুন দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক জামিল উদ্দিন।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন