বগুড়া সংবাদ ডট কম (নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি মো: ফিরোজ কামাল ফারুক) : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার সর্বত্রই সরকারের বিধি নিষেধ উপেক্ষা করে অবাধে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ নোট ও গাইড বই। সরকার সৃজনশীল শিক্ষা পদ্ধতি চালু করে শিক্ষা ক্ষেত্রে যে অগ্রনি ভূমিকা অব্যাহত রেখেছে তা ভেস্তে যাওয়ার জন্য অসাধু কিছু পুস্তুক প্রকাশনী ও বিক্রেতারা অবৈধ ভাবে টাকার নেশায় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের উজ্জল ভবিষ্যত নষ্ট করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। পৌর শহরের বিভিন্ন বইয়ের দোকানে খোলামেলা ভাবে প্রথম শ্রেণী থেকে শুরু করে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত অবাধে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ নোট ও গাইট বই। বর্তমান সরকার সৃজনশীল শিক্ষা পদ্ধতি চালু করে ইতোমধ্যে ব্যাপক সুনাম অর্জনসহ বিধি নিষেধ আইন চালু করেছে। তবে প্রকাশ্যে খোলামেলা ভাবে নোট বই বিক্রি হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এ যাবৎ কোন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি।
সূত্র জানায়, প্রথম শ্রেণী থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত নোট ও গাইট বই বিক্রি নিষিদ্ধ। এ বইগুলোর নাম একের ভিতর তিন, একের ভিতর পাঁচ, একের ভিতর সবসহ ইত্যাদি নামে বাজারজাত করা হয়েছে। কিন্তু এ আইনকে বৃদ্ধাঙ্গগুলী দেখিয়ে অসাধু কিছু ব্যবসায়ীরা নির্ভয়ে বিক্রি করছে গাইট বই। ফলে সৃজনশীল শিক্ষা ব্যবস্থা কোন কাজে আসবে না বলে অভিজ্ঞ শিক্ষাবিধদের ধারনা।
সরকারের এ আইনকে বৃদ্ধাঙ্গগুলি দেখিয়ে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের কিছু অসাধু শিক্ষক লাইব্রেরীর মালিকদের থেকে উপটোকন গ্রহণ পূর্বক শিক্ষার্থীদের গাইট বই বিক্রি করতে উদ্বুদ্ধ করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন