বগুড়া সংবাদ ডট কম (নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি মো: ফিরোজ কামাল ফারুক) : শীতে কাঁপছে বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলাবাসী। এতে করে শীতকালীন বিভিন্ন অসুখে রোগীর ভীড়ও বাড়ছে বিভিন্ন হাসপাতাল-ক্লিনিকে। গত কয়েকদিন ধরেই শীতের তীব্রতা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষগুলো জড়সড় হয়ে পড়েছেন। এদিকে, তীব্র শীত উপেক্ষা করে খেটে খাওয়া মানুষগুলো দু’মুঠো অন্নের জন্য ছুটছে কাজের সন্ধানে। প্রচন্ড শীতের সঙ্গে পাল্লা দিয়েই চলছে তাঁদের জীবন সংগ্রাম। শীতের তীব্রতার সাথে শীতজনিত রোগবালাই ছড়িয়ে পড়ায় উপজেলার শিশু ও বৃদ্ধরা নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।
অন্যদিকে প্রচন্ড শীতের কারণে শহরের অভিজাত বিপণী বিতান থেকে শুরু করে ফুটপাতের গরম কাপড়ের দোকানগুলোতে বাড়ছে শীতার্ত মানুষের ভিড়। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে উপজেলাসহ পার্শ্ববর্তী গ্রামগুলো ঘন কুয়াশায় ঢেকে যাচ্ছে। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হিমেল বাতাসের তীব্রতাও যেন বেড়ে যাচ্ছে। এতে বিপাকে পড়ছেন নিম্ন আয়ের মানুষজন। তবে শীতবস্ত্র ব্যবসায়ীদের মুখে হাসি ফুটেছে।
পৌর শহর, রনবাঘা বাজার, কুন্দারহাট ও ওমরপুরহাট সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, রাস্তার পাশের ফুটপাতে দোকানীরা নতুন ও পুরাতন কম্বল, সোয়েটার, জ্যাকেট, কোর্টসহ ছোট-বড়দের বিভিন্ন রকমের শীতবস্ত্র সাজিয়ে রেখেছেন। এসব দোকানে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন আয়ের জনগণের মাঝে শীতবস্ত্র কেনার ধুম পড়েছে। স্থানীয় বাসষ্ট্যান্ডে কয়েকজন ফেরিওয়ালাকে মাফলার, কানটুপি, হেডফোন কান ঢাকনা বিক্রি করতে দেখা যায়। তারা জানান, শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এসবের বিক্রি বাড়ছে। সব শ্রেণীর জনগণই তাদের ক্রেতা। শীতবস্ত্র বিক্রেতা হাবিবুর রহমান জানান, মধ্য ও নিম্ন আয়ের লোকজন এখান থেকে শীতের কাপড় কিনতে আসেন। শীত যতো বাড়ছে ক্রেতার সংখ্যা ততোই বাড়ছে। মার্কেট গুলোতেও শীতবস্ত্র বিক্রি বেড়েছে। তবে সেসব শীতবস্ত্রের দাম নিম্নবিত্তের নাগালের বাইরে।
এবিষয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: তোফাজ্জল হোসেন জানান, শীতের কারণে মানুষের নিউমোনিয়া, সর্দী, জ্বর, কাশি, আমাশয় রোগ হচ্ছে। এসব রোগে মহিলা, শিশু ও বৃদ্ধরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, এসব রোগে আক্রান্ত হয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি রোগী চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে আসছে। সাধ্যানুযায়ী তাদের চিকিৎসা সেবাও দেওয়া হচ্ছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন