বগুড়া সংবাদ ডটকম (সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি রাহেনূর ইসলাম স্বাধীন) :সময় দুপুর আনুমানিক দেড়টা সারিয়াকান্দি পৌর এলাকায় ঘুরাঘুরি করছিলেন অনুসন্ধানি এই সাংবাদিক। হঠাৎ করে দৃষ্টি গোচর হয় একটি কম্পিউটার দোকানের দিকে। বোরকা পরিহিত এক জন যুবতী আসিলেন দোকানের সামনে, তাকে দেখে সংবাদকর্মী তার অনুসন্ধানী মন নিয়ে গেলেন সেই দোকানটিতে। যা ভেবেছিলাম তাই- যুবতী তার এন্ড্রয়েট ফোন থেকে আট জিবি মোমেরি কার্ডটি খুলে ধরিয়ে দিলেন দোকানীর নিকট। দোকানী বললেন আপা কি চাই? মেয়েটি কিছু না বলে তার স্কুল ব্যাগ থেকে একটি সাদা খাতা কলম বের করে সেখানে ‘তিনটি এক্স’ লিখে খাতা কলম গুলো ব্যাগে আবার রাখলেন। এবার দোকানী বুঝে ফেলেছে আপার কি চাই!

শুধু এই ঘটনাই না এ রকম আরো ঘটনা ঘটছে প্রতিনিয়ত আমাদের চোঁখের সামনে অথবা আড়ালে। পার্ণ ভিডিওতে যারা আসক্ত তাদের মধ্যে অর্ধশতাংশ হচ্ছে স্কুল পড়–য়া ছাত্রীরা। এই সকল ঘটনা বন্ধের জন্য স্থানীয় প্রসাশন ও সু-চিন্তার নাগরিকদের কাছে আহব্বান জানিয়েছেন এলাকার সচেতন নাগরিক সমাজ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন