বগুড়া সংবাদ ডট কম : আজ ১৩ ডিসেম্বর। বগুড়া হানাদার মুক্ত দিবস। পাক হানাদার বাহিনীর বিরম্নদ্ধে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের পর মুক্তিকামী মানুষ মরণপণ লড়াই করে আজ বগুড়াকে মুক্ত করেছিল। মুক্তির উচ্ছ্বাসে বগুড়ায় আজ উড়েছিল স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা।
স্ব্বাধীনতা সংগ্রামে পাক হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার আলবদর বাহিনীর হাতে বগুড়ায় শহীদ হন অনেকেই। যার সাক্ষী অসংখ্য গণকবর ও স্মৃতিসৌধ। ডিসেম্বরের প্রথম থেকেই মুক্তিযোদ্ধারা বিভিন্ন দিক থেকে জেলা সদরের দিকে অগ্রসর হতে থাকন। মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্রবাহিনীর যৌথ আক্রমণে ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে পড়ে পাক হানাদর বাহিনী। একে একে মুক্ত হতে থাকে বগুড়ার সারিয়াকান্দী, কাহালু, নন্দীগ্রামসহ অন্যান্য এলাকা। মুক্তিযোদ্ধারা বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে শহরের দিকে এগিয়ে আসেন। একপর্যায়ে তুমুল লড়াইয়ের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধারা হানাদার বাহিনীর মনোবল ভেঙে দেন এবং অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখেন। ১৩ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্ন দল শহরে প্রবেশ করেন। আনন্দ-উচ্ছ্বাসে শহরের কেন্দ্রস্থলে উড়িয়ে দেন স্বাধীন বাংলাদেশের বিজয় পতাকা। এরপর বগুড়ার বেশ কিছু জায়গায় পাক হানাদার বাহিনীর সঙ্গে খন্দযুদ্ধ হয়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন