বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘি বশিকোড়া হিন্দু পাড়ার দুর্গা মন্দিরে প্রবেশ করে ৫ মুর্তি মাথা ও হাত ভাংচুরের ঘটনায় মন্দিরের সভাপতি উৎপল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা উল্লেখ করে গত শনিবার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অফিসার ইনচার্জ আবু সায়িদ মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান মামলা দায়েরের কথা নিশ্চিত করেন।
জানা যায়, আদমদীঘি বশীকোড়া গ্রামের হিন্দু পাড়ায় ৩০ টি হিন্দু পরিবার বসবাস করে এবং বাপ দাদার অমল থেকে দূর্গা মন্দিরে পূজা করে আসছিল। সম্প্রতি ৬/৭ মাস পূর্বে ওই মন্দিরে বম্বা, রাধা কৃষ্ণ, নারায়নের বাহক ও শিব সহ ৫ টি মুর্তি স্থাপন করে প্রতিদিন হরি পূজা করে আসছিল। গত ৫ ডিসেম্বর সকালে পূজা করতে গিয়ে দেখে ৫ টি মূর্তির মাতা ও হাত ভেঙ্গে চুরে নিয়ে গেছে দূবৃত্তরা। হিন্দু সম্পাদায়ের লোকজন জানায় এর পূর্বে এই মন্দিরে পূর্তিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছিল।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন