বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘির দত্তবাড়ীয় গ্রামের পশ্চিমে খাড়ির পাড়ের সরকারী প্রায় ১ লক্ষাধিক টাকা মুল্যের ১০ টি ইউক্যালেপটার গাছ রাতের আধারে কেটে নিয়ে গেছে এক প্রভাবশালী ব্যাক্তি। কিছু গাছ আর্ধেক কাটার পর স্থানীয়রা জানতে পারলে সেগুলা ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। সরকারী গাছ কাটায় অধ্যবধি পর্যন্ত আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি।
জানা যায়, আদমদীঘি উপজেলার দত্তবাড়ীয়া-জিনইর গ্রামের পার্শ্ব দিয়ে বয়ে যাওয়া সরকারী খাড়ী রয়েছে। উক্ত খাড়ীর পাড়ে শত শত গাছ আছে। কিছু অসাধু ব্যাক্তি তাদের নিজের ক্ষমতা বলে ওই সরকারী জায়গার গাছ রাতের আধারে বা সরকারী ছুটির দিনে কেটে নিচ্ছে। সম্প্রতি কয়েক দিন আগে দত্তবাড়ীয়া গ্রামের ছামছদ্দিন নামের এক প্রভাবশালী ব্যাক্তি তার জমি সংলগ্ন সরকারী খাড়ীর পাড়ের প্রায় ১ লক্ষ টাকা মুল্যের ১০ ইউক্যালেপটার গাছ তরিঘরি করে কেটে নেয় এবং আরো ২/৩ টি গাছ অর্ধেক কাটার পর স্থানীয়রা জানতে পারলে আধা কাটা গাছ রেখে বাঁকী গাছগুলো ওই স্থান থেকে সরিয়ে নেয়। সরকারী জায়গার গাছ কেটে নেওয়ায় এলাকায় যেমন নানা গুঞ্জন চলছে অন্যদিকে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এ ব্যাপারে গাছ কর্তৃনকারী ছামছদ্দিনের সাথে কথার বলার চেষ্ঠা করলে তার দেখা মেলে নি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহি অফিসার রেজাউল করিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, বিষয়টি জানা নেই, তবে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন