বগুড়া সংবাদ ডট কম  : বাকশালী আওয়ামী সরকার আবারো নীল নক্সার মাধ্যমে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে মন্তব্য করে বগুড়া জেলা যুবদলের সভাপতি ও ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ার বলেছেন, সাবেক তিন বারের সফল প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরকার যেভাবে উঠে পড়ে লেগেছে তাতে মনে হচ্ছে তাঁরা আজীবনের জন্য ক্ষমতা আকড়ে ধরে বাঁচতে চায়। দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্র করে যখন কোন ফায়দা হাসিল করতে পারছেনা তখন বিচার বিভাগকে প্রভাবিত করে বারবার মিথ্যা মামলায় পরোয়ানা জারি করা হচ্ছে। এসময় তিনি বলেন আগামী নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধীনে সুষ্ঠু-অবাধ হলে আপনারা জামানত হারাবেন। সরকারকে উদ্দেশ্য করে সিপার বলেন যতই ষড়যন্ত্র করেন না কেন জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত কোন নির্বাচন এদেশে হবে না। যুবদল রাজপথে আছে থাকবে। তিনি হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে নিয়ে নোংরা রাজনীতি দ্রুত বন্ধ না করা হলে উত্তরবঙ্গ অচল করে দেয়া হবে। জনবিছিন্ন সরকার জনগনকে এখন ভয় পাচ্ছে বলেই মামলা-হামলা করে আরেকটি ৫ জানুয়ারীর মত নির্বাচন করতে চায়। জনগন সুষ্ঠু ভোটের অপেক্ষায় আছে। গনতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা সময়ের ব্যাপার মাত্র। ১৮ সাল ১৬ কোটি জনতার বিজয় কাল উল্লেখ করে তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য বলেন আপনারা নির্বাচন ও আন্দোলন দুটোর জন্যই প্রস্তুত থাকুন। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারর্পাসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারীর প্রতিবাদে কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে সভাপতিত্বকালে তিনি এসব কথার বলেন। গত শনিবার বিকেলে বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা যুবদল সভাপতি রাফিউল ইসলাম রুবেল, শহর যুবদলের সিনিঃ নেতা জহুরুল ইসলাম ফুয়াদ, আনোয়ার হোসেন সান্টু, অধ্যক্ষ শাহীন, আব্দুল বারী, আলাল মোল্লা, মহররম হোসেন টপিন, শামীম, সঞ্জয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুরুজ্জামান, আবু বক্কর সিদ্দিকী রিপন, রুহুল আমিন, মানিক, সেলিম, রনি বাবু, রানা, তন্ময়, ইঞ্জিঃ জিয়াউল ইসলাম আপেল, খলিল, রাজা, ফারুক, শাকিল ইসলাম ত্বনি, মামুন, মিনার, মিনহাজ, সেলিম, আঃ হান্নান, রাজা, তৌহিদুল, সোহেল, জাহেদ, বাহাদুর, সিজু, সোবাহান, রোকন, মিম, চেরু, হাসান, মুন্না, মহিনুর শেখ, সুলতান, বাপ্পী, বিপ্লব, সম্পদ, চাঁন, রকি, বাবু, রাসেল, হেলাল, প্লাবনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন