বগুড়া সংবাদ ডট কম (আদমদীঘি প্রতিনিধি সাগর খান) : বগুড়ার আদমদীঘির সাঁতাহার পাড়ায় মিম নামের এক গৃহবধু আত্মহত্যায় ঘটনায় নিহতের বাবা আব্দুল মজিদ বাদী হয়ে নিহতের স্বামী রোমান সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে প্ররোচনা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ সাঁতাহারের নিহতের শ্বশুড় আব্দুর রশিদ (৪৫) ও তার স্ত্রী রেহেনা বেগম (৪০) কে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করেছেন।
জানা যায়, নওগাঁর ধামকুড়ি গ্রামের আব্দুল মজিদের নাবালিকা কন্যা মিম কে আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের সাঁতাহার পাড়ার আব্দুর রশিদের ছেলে রোমান ও তার সহযোগীরা মিমের ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক তুলে নিজ বাড়ীতে নিয়ে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে তাদের প্রায় জালা যন্ত্রনা সহ ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো এবং আত্মহত্যা করার জন্য হুমকি দিয়ে আসতো। মিম তাদের যন্ত্রনা সহ্য করতে না পেরে গত ২৮ আগষ্ট বিকেলে নিজ শয়ন ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। স্থানীয়রা মিম কে উদ্ধার করে নওগাঁ হাসপাতালে নিলে কর্মরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আব্দুল মজিদ বাদী হয়ে বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনাল আদালতে আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে রেকর্ডভুক্ত করার জন্য ওসি আদমদীঘিকে নির্দেশ দিলে রবিবার মামলা টি রেকর্ড করা হয়।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন