বগুড়া সংবাদ ডটকম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস আই সুমন) : একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের সুপারভাইজার বগুড়া সদরের বামন পাড়া গ্রামের হাফিজার রহমানের পুত্র এক সন্তানের জনক রেজাউল করিম (৩২)কে নৃসংশভাবে পুড়িয়ে হত্যা মামলার আটককৃত আসামী জিল্লুর রহমানসহ অন্যান্য আসামীদের ফাঁসির দাবীতে বৃহস্পতিবার সকালে মহাস্থান প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন নিহত রেজাউলের জনম দুখীনি মা সন্তানহারা জোবেদা বেওয়া।
সংবদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, নাটোর জেলার গোয়ালদিঘী কৃষ্ণপুর গ্রামের জাকির হোসেন পুত্র, নন্দীগ্রাম উপজেলার বিআরডিবি অফিসের সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান তার পুত্র রেজাউলের মাধ্যমে ২জন ব্যক্তিকে চাকুরী দেয়ার নামে ১৮ লক্ষ টাকা গ্রহণ করে। চাকরি দিতে না পারায় জিল্লুর রহমান তার কয়েকজন সঙ্গীসহ রেজাউলকে টাকা ফেরত দেয়ার নামে গত ০১-০৯-১৬ইং তারিখে নন্দীগ্রামে ডেকে নিয়ে রাত অনুমান ১০টা ৪০ মিনিটে প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে আলামত নষ্ট করার উদ্দেশ্যে রেজাউলের শরীরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে। পরে বাদী হয়ে নিহত রেজাউলের বড় ভাই জহুরুল ইসলাম নন্দীগ্রাম থানায় গত ০২-০৯-১৬ইং তারিখে ৩০২/৩৭৯/২০১/৩৪ ধারায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। প্রায় ১ বছর অতিবাহিত হলেও এখনো বিচার না হওয়ায় রেজাউল করিমের মা সংবাদ সম্মেলনে আটককৃত ৪ ঘাকতসহ অজ্ঞাতনামা অন্যান্য আসামীদের আটক করে আইনের মাধ্যমে দ্রুত ফাঁসি কার্যকর করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আহ্বান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন নিহত রেজাউলের বড় ভাই জহুরুল ইসলাম, বড়বোন হাজেরা বেগম, ভাবী জোবেদা আক্তার সহ রেজাউলের পরিবারের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন