বগুড়া সংবাদ ডট কম (শিবগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুর রহমান রানা) : বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা আলাদিপুর বন্দরের মৎস্য ব্যবসায়ী ও ইউপি সদস্য ইছাহাক আলী,সৎস্য আড়ৎদারদের পক্ষে থেকে গতকাল শনিবার তাদের ব্যবসায়ী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন এর আয়োজন করেন। তিনি তার লিখিত বক্তবে বলেন,আমি আলাদিপুর মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষের নিকট থেকে পূর্বজাহাঙ্গীরাবাদ মৌজার ৪৮৭ দাগে ১৫ শতক সহ ২৩শতক জমি ৫ বছরের জন্য ১ লক্ষ২৪ হাজার টাকা দিয়ে পত্তন নিয়ে মৎস্য আড়ৎ গড়ে তুলি। স্থানিয় এলাকা বাসি ও রাজনৈতিক নেতৃ বৃন্দের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মাদ্রাসা ও মসজিদ এর উন্নয়নের স্বার্থে মৎস্য আড়ৎ গড়ে উঠে। কিন্তু কিছু স্বার্থনেষি মহল আমাদের এই আড়ৎ ভেঙ্গে দেওয়ার জন্য ষড়ষন্ত্রে মেতে উঠেছে। গত কয়েক দিন আগে ভুল তথ্য দিয়ে বেশ কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। উপজেলার মোকামতলা পাকা রাস্তাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার পার্শ্বে মৎস্য আড়ৎ গড়ে তুলে রাস্তায় যানজট সৃষ্টি করছে, কিন্তু আমরা সড়ক ও জনপদ বিভাগের রাস্তায় কোন প্রকার বিঘœ সৃষ্টি করে আড়ৎ গড়ে তুলি নাই। তা ছাড়া আমাদের এই আড়ৎ শিবগঞ্জ এবং কিচক হাট থেকে ৪/৫ কিঃ মিঃ দূরে রয়েছে কাজেই কোন হাটের ক্ষতি করে এই আড়ৎ গড়ে উঠে নাই। তিনি এলাকাবাসির সার্বিক সহযোগীতায় আলাদিপুর অনান্নয়ন এলাকাকে উন্নয়ন করার লক্ষে এ মৎস্য আড়ৎ গড়ে তোলোর চেষ্ট করছেন। এ বিষয়ে শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আঃ রাজ্জাক বলেন, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সরকারি রাস্তা নষ্ট করে মৎস্য আড়ৎ গড়ে উঠেছে অথচ সে সব আড়তে প্রশাসনের দৃষ্টি পড়ছে না। কিন্তু আলাদিপুর এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে মৎস্য আড়ৎ গড়ে উঠলেও এ আড়ৎ ভেঙ্গে ফেলার জন্য নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সুতরাং আমরা আইনকে শ্রদ্ধা করি। তাই রাস্তার পার্শ্বে গড়ে উঠা সব মৎস্য আড়ৎ ভেঙ্গে দেওয়া হলে আইন মোতাবেক আমরাও ভেঙ্গে ফেলব। সংবাদ সম্মলনে আরো উপস্থতি ছিলেন,আওয়ামীলীগ নেতা মোখলেছার রহমান মুন্ন,শামছুল ইসলাম, দুলাল প্রাধান, মোহাম্মদ আলী, মাহবুর,মৎস্য আড়ৎদার সোহাগ,আলহাজ্ব খাজা মিয়া, অখিল, আবু বক্কর সিদ্দিক, সুভাস, হাসান, মহাসিন প্রমুখ।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন