বগুড়া সংবাদ ডট কম : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ও বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিআইপি আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন বলেছেন, আমি বগুড়ার জন্য কিছু উন্নয়ন কাজ করতে চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেছি বগুড়ার উন্নয়ন করার জন্য। তারই ধারাবাহিকতায় বগুড়ায় উন্নয়ন মুলক কাজ শুরু হয়েছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী বিশেষ বরাদ্ধ প্রদান করেছে। আগামী দিনে আরো উন্নয়নমুলক কাজ হবে। আজকে যারা সিআইপি হিসেবে আমাকে সংবর্ধনা দিলেন তাদের জন্য বলছি, আপনারা আমাকে বিভিন্ন সহযোগিতা করবেন আমি কেন্দ্রীয় থেকে উন্নয়নমুলক কাজ নিয়ে আসবো। যা বগুড়াবাসির জীবনমানকে উন্নয়ন করবে। আগামী দিনে আমাকে জনগণ সুযোগ দিলে বগুড়ার উন্নয়নে আরো কাজ করবো। এ জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
আপনারা জানেন, বর্তমান সরকার দেশের প্রতিটি অঞ্চলে প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড করছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে সরকার সর্বদা সচেষ্ঠ। বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। পদ্মা সেতুর কাজ অর্ধেক হয়ে গেছে যা এদেশের জনগণের টাকায় নির্মিত হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে।
৫ম বারের মত সিআইপি নির্বাচিত হওয়ায় বুধবার বিকাল ৩টায় বগুড়া শহরের শহীদ খোকন পার্কে জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত হয়ে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বগুড়া জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ডাক্তার মকবুল হোসেন। বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, বগুড়া চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাছুদুর রহমান মিলন। উপস্থিত ছিলেন আবুল কালাম আজাদ, এ্যাডঃ মকবুল হোসেন মুকুল, এ্যাডঃ রেজাউল করিম মন্টু, এ্যাডঃ আমান উল্লাহ, শাহ আব্দুল খালেক, টি জামান নিকেতা, প্রদীপ কুমার রায়, আসাদুর রহমান দুলু, শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, শাহ আকতারুজ্জামান ডিউক, এ্যাডঃ জাকির হোসেন নবাব, আব্দুল খালেক বাবলু, সুলতান মাহমুদ খান রনি, শেরীন আনোয়ার জর্জিস, এ্যাডঃ শফিকুল আলম আক্কাস, আনিসুজ্জামান মিন্টু, সাগর কুমার রায়, আ্ইনুল হক সোহেল, এসএম রুহুল মোমিন তারিক, এসএম শাজাহান, এবিএম জহুরুল হক বুলবুল, মাশরাফি হিরো, আল রাজি জুয়েল, তপন চক্রবর্তি, তৌহিদুর রহমান মানিক, দিলিপ কুমার চৌধুরী, এএইচ আযম খান, আজিজুল হক, জিয়াউল করিম শ্যাম্পু, রফি নেওয়াজ খান রবিন, আবু সুফিয়ান সফিক, সিরাজুল ইসলাম খান রাজু, তালেবুল ইসলাম তালেব, আব্দুল খালেক দুলু, ফজলুল হক ফজলু, আব্দুল মান্নান, মাহফুজুল ইসলাম রাজ, শেখ শামীম, ওবায়ইদুল হাসান ববি, এ্যাডনিস বাবু তালুকদার, নাজনিন আকতার, মাহফুজা খানম লিপি, আলমগীর শাহী সুমন, এবিএম জিয়াউল হক বাবলা, আবু সাঈদ সিদ্দিকী, অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী, আব্দুল লতিফ মন্ডল, সামছুদ্দিন শেখ হেলাল, কামরুল মোর্শেদ আপেল, আব্দুল মান্নান আকন্দ, আব্দুল মতিন সরকার, সাজেদুর রহমান শাহীন, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, এ্যাডঃ লাইজিন আরা লিনা, ডালিয়া নাছরিন রিক্তা, শহীদুল ইসলাম বাপ্পী, আসলাম হোসেন, আব্দুর রউফ, মোশারফ হোসেন বুলবুল, খোরশেদ আলম, এরশাদ শেখ প্রমুখ। আওয়ামীলীগ, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠন, বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন, সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে মমতাজ উদ্দিনকে ক্রেষ্ট ও ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানানো হয়। এর আগে বিভিন্ন সংগঠন বর্নাঢ় র‌্যালী নিয়ে সংবর্ধনা সভায় যোগদান করে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন