বগুড়া সংবাদ ডট কম (গাবতলী প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম লাকী) : স্বাধীনতা যুদ্ধে জয়ী হলেও জীবন যুদ্ধে হারতে বসেছে মুক্তিযুদ্ধের এক বীর সৈনিক মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লা (৬৫)। পঙ্গুবস্থায় বগুড়ার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে প্রতিনিয়ত মৃত্যুর প্রহর গুনছেন তিনি। বগুড়া গাবতলীর নাড়ুয়ামালা ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত রমজান আলী মোল্লার ছেলে তিনি। জানা গেছে, গত দুই মাস আগে ডাইবেটিসের রোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লার বাম পায়ে প্রথমে একটি কাটা ফোটে। ওই কাটা তুলতে গিয়ে তা ঘাঁয়ে পরিণত হয়। ওই ঘাঁ ধীরে ধীরে মারাত্মক ইনফেকশন হয়। পরে ডাক্তারদের পরামর্শে বাম পায়ের গোড়ালি কেটে ফেলতে হয়। তারপরও কোন উন্নতি না হলে আবারও বাম পায়ের উড়ু পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও তার ডান পায়ে ইনফেকশন হওয়ার কারণে বৃদ্ধাঙ্গুলী কেটে ফেলা হয়েছে। বর্তমানে সে বগুড়ার সূত্রাপুর আশা হেলথ কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু সাথে পাঞ্জা লড়ছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লার স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন হলে কঠিন এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লা। তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে হিমশিম খাচ্ছেন তার পরিবার। তাঁরা বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিয়ে যাচ্ছেন। উন্নয়নের কান্ডারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট আকুল আবেদন অসহায় এই মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লাকে বাঁচাতে একটু সহযোগিতা ও সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লার চিকিৎসার্থে গাবতলী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের কেউ আর্থিক সহযোগিতার হাত বাড়ায়নি বলে জানা গেছে। অসহায় মুক্তিযোদ্ধা আঃ সাত্তার মোল্লা ১ছেলে ও ৪মেয়ে সন্তানের জনক।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন