বগুড়া সংবাদ ডট কম (মহাস্থান প্রতিনিধি এস আই সুমন) : বগুড়া সদরের মহিষবাথানে বিয়ের বছর না পেরোতেই অন্যের হাত ধরে পরকিয়ার টানে নববধু উধাও। থানায় অভিযোগ দায়ের।
থানায় অভিযোগ ও এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, গত ৫ নভেম্বর বগুড়া সদরের শেখেরকোলা ইউনিয়নের মহিষবাথান গ্রামের মুদি ব্যাবসায়ী তোফাজ্জল হোসেনের পুত্র আব্দুল মমিন একই উপজেলার মাটিডালি হাজিপাড়া গ্রামের রাজ্জাক শেখের কন্যা বিনা আক্তার শামিমাকে ৯মাস পূর্বে বিবাহ করে। বিয়ের পর থেকেই তার স্ত্রী মোবাইল ফোনে গোপনে কথা বলে এ নিয়ে স্বামী/ স্ত্রীর মধ্যে কথার কাটাকাটিও হয়েছে। গত ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় মমিন কাঁচা বাজার করতে স্থানীয় বাজারে যায় এবং মমিনের বাবা তোফাজ্জল তার নিজস্ব ভুসিমালের দোকানে বেচা কেনায় ব্যস্ত থাকে এরি ফাকে বাড়িতে কেউ নাথাকায় মমিনের স্ত্রী বিনা আক্তার শামিমা সকলের অগোচরে ব্যাবসার জন্য রক্ষিত ৮৫হাজার টাকা ও ১ভরি ওজনের সোনার গহনা ও বেশকিছু পুরাতন কাপড় নিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজির পর নাপেয়ে গত ৬নভেম্বর বগুড়া সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন শামিমার স্বামী আব্দুল মমিন। অভিযোগটির তদন্ত অফিসার এস আই ওয়াদুত এর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান তদন্ত চলছে তবে মেয়েটির এখনও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন