বগুড়া সংবাদ ডট কম (শিবগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুর রহমান রানা) : বগুড়ার শিবগঞ্জে প্রভাব খাটিয়ে জোরপূর্বক ভাবে নিরহ্ কৃষককে পুকুরে লক্ষাধিক টাকার মাছ লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মাছ লুটে বাধা দেওয়ায় সংঘর্ষে বৃদ্ধ মহিলা সহ আহত ৩।
অভিযোগ সূত্রে জানাযায়ঃ শিবগঞ্জ উপজেলার শিবগঞ্জ ইউনিয়নের পূর্বজাহাঙ্গীরাবাদ মাঝপাড়া গ্রামের কৃষক মোঃ ইসমাইল হোসেন শেখ তার বাড়ী পার্শ্বে নিজ পুকুরের দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছে। কিন্তু হঠাৎ করে গত মঙ্গলবার দুপুর অনুমান ১২টার দিকে একই গ্রামের খাতের আলী পুত্র মোঃ শহিদুল ইসলাম, শাহজাহান আলী, সায়েদ আলী, ১০/১৫জনের সংবদ্ধ দল নিয়ে জোরপূর্বক ভাবে ইসমাইল হোসেন শেখ এর পুকুরে মাছ ধরতে থাকলে ইসমাইল তাদেরকে বাঁধা প্রদান করিলে শহিদুল তার সংবদ্ধ দল নিয়ে ইসমাইলের উপর অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে মারপিট শুরু করে। এসময় ইসমাইলের চিৎকারে তার বড় ভাই ফজলুর রহমান ও বৃদ্ধ মা আমেনা বেগম আগাইয়া আসিলে তাদেরকেও এলোপাথারীভাবে মারপিট করা হয়। পরে গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যেতে চাইলে সেখানেও তারা তাদেরকে বাধা দেয়। পরে গ্রামবাসী উত্তেজীত হলে তারা পালিয়ে যায় এরপর লোকজন তাদেরকে নিকটস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে। আহতরা হলেন, পূর্ব জাহাঙ্গীরাবাদ গ্রামের মৃতঃ লোকমান হোসেনের পুত্র ফজলুর রহমান (৫৫), তার ভাই ইসমাইল হোসেন শেখ (৫০), বৃদ্ধ মা আমেনা বেগম (৭৫)। এব্যাপারে হাসপাতালে গিয়ে আহত ইসমাইলের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ভাই আমার নিজ পুকুর থেকে লক্ষাধিক টাকা মাছ লুটতারাজ করেছে শহিদুল শুধু মাছ লুটতারাজ করেও খান্ত হয়নি। ওরা আমাদেরকে বেধর মারধর করে। আমরা হাসপাতালে থাকা অবস্থায় শহিদুল ও তার বাহিনীরা আমার পরিবারবর্গকে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদশন করছে। তিনি আরো বলেন এর আগেও শহিদুল ও তার লোকজন আমার জমির ১৬৯ টি গাছ কেটে নিয়ে যায় যার বাজার মূল্য ৮৪ হাজার টাকা এব্যাপারে কোর্টে মামলা চলমান রয়েছে। ভাই ওরা যে সন্ত্রাসী, ওদের জনবল বেশী, আমার কোন জনবল নাই, আমার আছে আইন, প্রতিপক্ষের লোকজনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন