বগুড়া সংবাদ ডটকম (নামুজা প্রতিনিধি,আনোয়ার হোসেন): বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে প্রতারণার স্বীকার হলো বুড়িগঞ্জের তিন যুবক। জানা যায়, মাঝিহট্ট ইউনিয়নের গামড়া গ্রামের মানবপাচারকারী চক্রের সদস্য মৃত: শাবান আলীর পুত্র ফজলু মিয়ার কুচক্রের ফাঁদে পা দিয়ে ভাগ্য ফিরানোর প্রত্যাশায় মালয়েশিয়া গমন করে তিন যুবক। দালাল ফজলুর ত্র“টিপূর্ণ কার্যকলাপের কারণে সঠিক কাগজপত্র দেখাতে না পারায় মালয়েশিয়া পৌঁছার পর বিমান বন্দরেই পুলিশের হাতে ধরা খেয়ে যায় ওই তিন যুবক। এরা হলো বুড়িগঞ্জ ইউনিয়নের উত্তর ছাতড়া গ্রামের বাবলু মিয়ার ছেলে রানা (৩০), লতিফের ছেলে আবু সাইদ (৩০) ও দক্ষিণ ছাতড়া গ্রামের কোরবানের পুত্র মমিন (৩১)। গত ১৯অক্টোবর,২০১৭ তারিখে দালাল ফজলু মিয়া বিমান যোগে তাদের মালয়েশিয়া পাঠান। এদের মধ্যে রানা ৭দিন এবং আবু সাইদ ৩দিন পুলিশ হেফাজতে থাকার পর ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরলেও মমিন এখনোও মালয়েশিয়ায় পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। এ ব্যাপারে দালাল ফজলু মিয়ার নিকট জানতে চাওয়া হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি জানান, মালয়েশিয়ায় আটককৃত মমিন দুয়েক দিনের মধ্যেই ছাড়া পাবে। দালাল চক্রের দৌরাত্বে অত্র এলাকায় নিখোঁজ, মৃত্যুসহ অনেকেই সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসেছে। এসব কুচক্রিদের মূল উৎপাটন করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন সচেতন মহল।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন